অস্ট্রেলিয়ায় গান্ধীমূর্তি ভাঙার পালটা! গুজরাটে গডসের মূর্তি ভাঙলেন কংগ্রেস কর্মীরা

09:51 PM Nov 16, 2021 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শুক্রবার অস্ট্রেলিয়ায় ((Australia) মহাত্মা গান্ধীর (Mahatma Gandhi) একটি ব্রোঞ্জের মূর্তি ভাঙা হয়। যে ঘটনার তীব্র নিন্দা করে দুঃখপ্রকাশ করেন অস্ট্রলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। মঙ্গলবার গুজরাটে নাথুরাম গডসের একটি মূর্তি ভাঙার কথা প্রকাশ্যে এল। আগস্ট মাসে গুজরাটের (Gujrat) জামনগরে নাথুরাম গডসের (Nathuram Godse) একটি আবক্ষ মূর্তি স্থাপন করেছিল ‘হিন্দু সেনা’ (Hindu Sena) নামের একটি সংস্থা। মঙ্গলবার সেই মূর্তিটিকেই ভেঙে দেন জামনগরের কংগ্রেস (Congress) সভাপতি দিগুভু জাদেজা ও তাঁর অনুগামীরা। 

Advertisement

একটি সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, মঙ্গলবার সকালে কংগ্রেস নেতা ও তাঁর অনুগামীরা অকুস্থলে পৌঁছন এবং মহাত্মা গান্ধীর হত্যাকারী নাথুরাম গডসের মূর্তিটি ভেঙে দেন। চলতি বছরের আগস্ট মাসে হিন্দু সেনা ঘোষণা করেছিল, তারা গুজরাটের জামনগরে নাথুরাম গডসের একটি আবক্ষ মূর্তি স্থাপন করবে। এই বিষয়ে তারা প্রশাসনের কাছে দরবার করে। যদিও স্থানীয় প্রশাসন মূর্তি স্থাপনের জন্য তাদের কোনও জায়গা দেয়নি। এরপর সংগঠনটি নিজেদের উদ্যোগে স্থানীয় হনুমান আশ্রমে গডসের একটি আবক্ষ মূর্তি স্থাপন করে। মঙ্গলবার সেই মূর্তিটিই কংগ্রেস নেতা দিগুভু জাদেজার নেতৃ্ত্বে ভেঙে দেন কর্মীরা।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: লক্ষ্য পরিকাঠামোর উন্নয়ন, চলতি মাসে রাজ্যগুলিকে করের অংশ বাবদ দ্বিগুণ টাকা দেবে কেন্দ্র]

গত শুক্রবারই মহাত্মা গান্ধীর একটি ব্রোঞ্জের মূর্তি ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয় অস্ট্রেলিয়ায়। ওই মূর্তিটি ভারত সরকার উপহার দিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া সরকারকে। ভারতের স্বাধীনতার ৭৫ বছর উদযাপনের অংশ হিসেবে প্রধানমন্ত্রী মরিসন ভারতের কনসাল জেনারেল রাজকুমার ও অন্যান্য অস্ট্রেলিয়ান নেতাদের সঙ্গে রোভিলের অস্ট্রেলিয়ান-ইন্ডিয়ান কমিউনিটি সেন্টারে মূর্তিটি উন্মোচন করেন। এরপরেই মূর্তিটিকে ভেঙে দেওয়া হয়। 

[আরও পড়ুন: উত্তরপ্রদেশে ভোটের মুখে ‘উপহার’, পূর্বাঞ্চল এক্সপ্রেসওয়ে উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী]

ঘটনার পর গান্ধী মূর্তি ভাঙার তীব্র নিন্দা করেছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন (Scott Morrison)। তিনি বলেন, এটি অত্যন্ত অসম্মানজনক। এই ঘটনা ভারত ও অস্ট্রেলিয়া দুই দেশের মানুষের জন্যই দুঃখজনক।

Advertisement
Next