‘নেতাজির স্বপ্নের স্বাধীন ভারত এখনও গড়ে ওঠেনি, আমরাই গড়ব’, মূর্তি উন্মোচনে শপথ মোদির

09:38 PM Jan 23, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্বাধীনতা। স্বাধীন ভারত। এসব শব্দ ঘুরে ফিরে আসে, আসবে। আর বিশেষ বিশেষ এসব শব্দের অন্তর্নিহিত অর্থ খোঁজার তাগিদও আসে ফিরে। রবিবার, নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর (Netaji Subhas Chandra Bose) ১২৫ তম জন্মদিন যেন সেই তাগিদ নিয়ে এল নতুন করে। আজীবন যে স্বাধীন ভারতের স্বপ্ন দেখে গিয়েছিলেন নেতাজি, স্বাধীনতার ৭৫ তম বর্ষে দাঁড়িয়ে তার কতটাই বা পূরণ হয়েছে? এই প্রশ্ন তুলেই নতুন করে দেশপ্রেমের আবেগ উসকে দিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (PM Narendra Modi)। এদিন সন্ধেবেলা দিল্লির (Delhi)ইন্ডিয়া গেটে দেশনায়কের হলোগ্রাম মূর্তি উদ্বোধন করতে গিয়ে প্রত্যয়ী কণ্ঠে তিনি বললেন, ”নেতাজির স্বপ্নের স্বাধীন ভারত এখনও গড়ে ওঠেনি। আমরাই তা গড়ব। স্বাধীনতার ১০০ বছর পূর্তির আগেই নতুন ভারতের উদয় হবে। যা বিশ্বের দরবারে সর্বদা মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়ে থাকবে।”

Advertisement

টার্গেট ২০৪৭। অর্থাৎ স্বাধীনতার ঠিক ১০০ বছর। তার মধ্যে আজকের ভারতের নতুন রূপ দেখবে গোটা বিশ্ব। ভারতে প্রকৃত ‘স্বাধীনতা’ আসবে। যে স্বাধীনতার স্বপ্ন দেখতেন নেতাজি। মোদির কথায়, ”তিনিই দেশবাসীকে উপলব্ধি করিয়েছিলেন, স্বাধীনতা ভিক্ষা নয়, স্বাধীনতা অর্জন করার। মাথা উঁচু করে তা ছিনিয়ে নিতে হবে। পৃথিবীতে এমন কোনও শক্তি নেই যে ভারতকে লক্ষ্যপূরণ থেকে বিচ্যুত করতে পারবে। এখন আমাদের সেই স্বপ্ন পূরণ করতে হবে। আমরাই পারব নেতাজির স্বপ্নের স্বাধীন ভারত গড়তে। সেই লক্ষ্যেই আমরা কাজ করছি।” দেশনায়কের ১২৫ তম জন্মবর্ষ স্মরণীয় করে রাখতে কী কী পদক্ষেপ নিয়েছে মোদি সরকার, তাও উল্লেখ করেছেন প্রধানমন্ত্রী।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: সাধারণতন্ত্র দিবসের মহড়ার ভিডিওয় ‘মনিকা ও মাই ডার্লিং…’, গর্জে উঠলেন মহুয়া মৈত্র]

এ প্রসঙ্গে তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রী। বলেন, ”নেতাজি সম্পর্কিত সমস্ত ফাইল প্রকাশ্যে আনা হচ্ছে। আর সেই কাজ করতে পেরে আমরা ভাগ্যবান।” প্রসঙ্গত, নেতাজি সম্পর্কিত ফাইল প্রকাশ নিয়ে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী একাধিকবার কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। তাঁর অভিযোগ, রাজ্যের হাতে এই সংক্রান্ত যা যা তথ্য ছিল, তার সবটাই ডি-ক্লাসিফাই (Declassified) করা হয়েছে। এখন কেন্দ্র কেন সমস্ত ফাইল প্রকাশ্যে আনছে না? মনে করা হচ্ছে, রবিবার সন্ধ্যায় ইন্ডিয়া গেটের অনুষ্ঠান থেকে সেই প্রশ্নেরও জবাব দিলেন প্রধানমন্ত্রী।

[আরও পড়ুন: ‘জেতার পর অন্য দলে যাব না’, গোয়ার প্রার্থীদের ঈশ্বরের নামে শপথ করিয়ে নিল কংগ্রেস]

এদিনের অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী ছাড়াও অতিথি আসনে ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী। অনুষ্ঠানের শুরুতেই বক্তব্য রাখেন অমিত শাহ। তাঁর কথায়, ”এই যে নেতাজির ১২৫ তম জন্মবর্ষে এই মূর্তি স্থাপিত হচ্ছে, এটা শুধু গ্রানাইটের মূর্তিই নয়, এটা দেশের এক প্রবাদপ্রতিম পুরুষের প্রতি শ্রদ্ধাজ্ঞাপনের প্রতীক। নেতাজি দেশের স্বাধীনতার জন্য সর্বস্ব ত্যাগ করেছিলেন। আমরা তাঁর প্রতি শ্রদ্ধায় নত হই, অনুপ্রাণিত হই। ”

Advertisement
Next