Advertisement

TMC in Tripura: আরও নিবিড় জনসংযোগ, ত্রিপুরায় তৃণমূল কর্মীর বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজ অভিষেকের

08:50 PM Jan 02, 2022 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জনসংযোগ আরও নিবিড় করার লক্ষ্যেই নতুন বছরে ত্রিপুরা সফরে গেলেন তৃণমূলের (TMC) সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। তারই অংশ হিসেবে রবিবার তেলিয়ামুড়ায় এক দলীয় কর্মী অনির্বাণ সরকারের বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজ সারলেন তিনি। মাটির পাত্রে বেশ কয়েকটি পদ সাজিয়ে তৃপ্তি সহকারে খাওয়াদাওয়া করলেন অভিষেক। যদিও এদিন তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদকের রাজনৈতিক কর্মসূচিতে বাধা দিয়েছে পুলিশ। বাতিল হয়েছে নির্ধারিত অনুষ্ঠান। তবে দলীয় কর্মীর বাড়ি গিয়ে মধ্যাহ্নভোজ হল পূর্বনির্ধারিত সূচি মেনেই।

Advertisement

[আরও পড়ুন: কেন দুর্ঘটনার কবলে পড়ল বিপিন রাওয়াতের কপ্টার? বায়ুসেনার তদন্তে মিলল ইঙ্গিত]

দলীয় সূত্রে খবর, এদিন পাত পেড়েই খাওয়াদাওয়া করেছেন অভিষেক। মেনুতে ছিল ফ্রায়েড রাইস, দেশি মুরগির পকোড়া, ইলিশ পাতুরি, পায়রার রোস্ট, আম-খেজুরের চাটনি, টক দই। তেলিয়ামুড়ায় দলীয় কর্মীর বাড়িতে তাঁর সঙ্গে মধ্যাহ্নভোজ সেরেছেন দলের রাজ্যসভার সাংসদ সুস্মিতা দেব, ত্রিপুরায় (Tripura) দলের পর্যবেক্ষক রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। ছিলেন দলের আরও ২ নেতা।

Advertising
Advertising

রবিবার বেলা বারোটা নাগাদ আগরতলায় নেমেই চতুর্দশ দেবতা মন্দিরের উদ্দেশে রওনা দেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বিজেপিকে তোপ দেগেছেন। দুপুরে তেলিয়ামুড়া এলাকার কালি তিলিয়ায় দলীয় কর্মী অনির্বাণ সরকারের বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজ সারলেন। বিকেলে বরদলইতে সংহিতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে চা-চক্রে যোগ দেন অভিষেক। সোমবার সকালে মিডিয়ার প্রতিনিধিদের সঙ্গে প্রাতঃরাশ সারবেন তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক। হোটেলেই দলের ত্রিপুরা স্টিয়ারিং কমিটির সদস্য ও অন্য নেতৃত্বের সঙ্গে বৈঠক করার কথা রয়েছে তাঁর।

[আরও পড়ুন: TMC in Tripura: ‘পিপীলিকার পাখা গজায় মরিবার তরে’, ত্রিপুরার মন্দিরে পুজো দিয়ে বিজেপিকে তোপ অভিষেকের]

এদিকে, বারামুড়ার ইকো পার্কে আদিবাসীদের একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার কথা ছিল অভিষেকের। তারপর তেলিয়ামুড়াতে এক দলীয় কর্মীর বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজ করার কথা ছিল তাঁর। সেখানে দলীয় কর্মীদের সঙ্গে বৈঠক করার কথা ছিল তাঁর। কিন্তু ইকো পার্কের কর্মসূচিতে অনুমতি দেয়নি জেলা প্রশাসন।

Advertisement
Next