Advertisement

‘ব্যবসা করতে গেলে জয় শ্রীরাম বলতেই হবে’, মুসলিম ব্যক্তিকে নিগ্রহের অভিযোগে ধৃত ২

09:10 AM Aug 30, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মুসলিম ব্যক্তিকে জোর করে ‘জয় শ্রীরাম’ বলানোর অভিযোগে দু’জনকে গ্রেপ্তার করল মধ্যপ্রদেশের পুলিশ (Madhya Pradesh Police)। শনিবার ঘটনাটি ঘটে সে রাজ্যের উজ্জয়িনী জেলায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও-ও ছড়িয়ে পড়ে বলে খবর। 

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

অভিযোগ, উজ্জয়িনীর মাহিদপুরের কাছে একটি গ্রামে এক মুসলিম ব‌্যক্তিকে এভাবে হেনস্তা করা হয়।  যে ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল তাতে দেখা গিয়েছে, অভিযুক্ত দু’জন পেশায় ব‌্যবসায়ী মুসলিম ব্যক্তিকে ঘিরে রেখেছেন। একজন তাঁর ধরে বলছেন, “জয় শ্রীরাম বলতে কীসের আপত্তি। এ গ্রামে ব‌্যবসা করতে চাইলে তোকে বলতেই হবে। বল, জয় শ্রীরাম।” এই কথা শুনে মুসলিম ব‌্যক্তি অভিযুক্তের হাত ছাড়িয়ে চলে যাওয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু ব্যবসায়ীরা তাঁকে জোর করে ধরে রাখেন। তখন বাধ‌্য হয়ে সেই মুসলিম ব‌্যক্তি বলেন, “চল ঠিক আছে। জয় শ্রীরাম বললাম। এবার খুশি তো?”

[আরও পড়ুন: Kama Sutra: বইজুড়ে হিন্দু দেবদেবীর আপত্তিকর ছবি! গুজরাটে কামসূত্র পোড়াল বজরং দল]

এভাবে হেনস্তার শিকার হওয়ার পর ওই ব‌্যক্তি উজ্জয়িনী থানায় FIR দায়ের করেন। শনিবার অভিযুক্তদের গ্রেপ্তারির পর মাহিদপুরের পুলিশকর্তা আর কে রাই বলেন, “পুলিশ অভিযুক্ত কমল ও ঈশ্বরকে গ্রেপ্তার করেছে। ওদের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ করা হবে, যাতে সমাজের সকলে বোঝে যে, এ ধরনের ঘটনা বরদাস্ত করা হবে না।”

উল্লেখ‌্য, গত সপ্তাহেই মধ‌্যপ্রদেশের ইন্দোরে এক মুসলিম ব‌্যক্তি হিন্দু নাম নিয়ে চুড়ি বিক্রি করায় তাকে বেধড়ক মারধর করে কয়েকজন যুবক। সেই ঘটনার ভিডিওটিও সোশ‌্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হলে তুমুল বিতর্ক সৃষ্টি হয়। ঘটনার তীব্র নিন্দা করেন কংগ্রেস নেতা কমল নাথ।  মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহানের নেতৃত্বাধীন বিজেপি সরকারকে একহাত নিয়ে টুইটারে  অভিযোগ করেন, আইনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে মধ্যপ্রদেশে অরাজকতা চলছে।  আর সরকার শুধু নীরব দর্শক হয়ে সমস্ত কিছু দেখছে। 

[আরও পড়ুন: Farmers’ Protest: কৃষক বিক্ষোভ নিয়ে উলটো সুর মেঘালয়ের রাজ্যপালের, তোপ দাগলেন বিজেপিকে]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

Advertisement
Next