জেলের ভিতরেই মন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈনের হাত-পা মালিশ! ভাইরাল ভিডিও নিয়ে তুঙ্গে বিতর্ক

08:28 PM Nov 19, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জেলে রাজার হালে দিন কাটাচ্ছেন! এমনটাই ছিল আর্থিক তছরুপের মামলায় ধৃত আম আদমি পার্টির (AAP)-র মন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈনের (Satyendra Jain) বিরুদ্ধে অভিযোগ। সেই অভিযোগ প্রমাণিত হল এবার, এমনটাই বলছে গেরুয়া শিবির। প্রকাশ্যে আসা একটি ভিডিও (ভিডিওর সত্যতা যাচাই করেনি প্রতিদিন ডিজিটাল) সূত্রে একথা বলা হচ্ছে। যেখানে দেখা গিয়েছে, ধোপদুরস্ত বিছানায় শুয়ে সত্যেন্দ্র জৈন। সেই সময় একজন তাঁর পা মালিশ করে দিচ্ছেন। ঘটনায় শোরগোল পড়ে গিয়েছে রাজনৈতিক মহলে।

Advertisement

আপ মন্ত্রী দিল্লির (Delhi) তিহার জেলে বন্দি রয়েছেন। তাঁর বিরুদ্ধে চলা মামলার শুনানিতে ইডি (ED) দাবি করেছিল, মন্ত্রীকে ভিআইপি পরিষেবা দেওয়া হচ্ছে জেলের ভেতরে। এমনকী সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতেই সরিয়ে দেওয়া হয়েছিল জেল সুপার অজিত কুমারকে। প্রকাশ্যে আসা ভিডিওতে দেখা গেল, তিহার জেলে বাস্তবিক রাজার হালেই রয়েছেন সত্যেন্দ্র জৈন। পরিপাটি বিছানায় আয়েশ করে শুয়ে আছেন তিনি। হাতে ধরা একগুচ্ছ কাগজ পড়ছেন। সেই সময় তেল দিয়ে তাঁর পা মালিশ করে দিচ্ছেন এক ব্যক্তি।

[আরও পড়ুন: মন জয় করতে ময়দানে মোদি, তবু গুজরাটে আদিবাসী ভোট নিয়ে চিন্তায় বিজেপি]

যদিও আপের তরফে মণীশ সিসোদিয়া (Manish Sisodia) জানিয়েছেন, দিল্লির মন্ত্রী জেলে আহত হন। চিকিৎসার অঙ্গ হিসেবেই হাত-পা মালিশ করাতে হয়। অন্যদিকে জেল কর্তৃপক্ষের দাবি, এটি পুরনো ভিডিও। যাঁরা এই কাজে জড়িত ছিলেন, ইতিমধ্যে সেই সব আধিকারিক এবং কর্মীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করেছে পুলিশ। এদিকে বিজেপি নেতা শেহজাদ দিল্লির মন্ত্রীর বিতর্কিত ভিডিও টুইট করে লিখেছেন, “আইনকানুন ডাস্টবিনে ছুঁড়ে ফেলা হয়েছে। জেলের ভিতরেই ভিআইপি পরিষেবা! এই ধরনের মন্ত্রীকে বাঁচাতে আসবেন কেজরিওয়াল? জৈনকে দল থেকে বহিষ্কার করা উচিত নয় কি?”

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: খোদ বিদেশমন্ত্রকে পাক চর! গাড়িচালকের গ্রেপ্তারিতে চাঞ্চল্য]

উল্লেখ্য, গত মাসে জেলের একটি সিসিটিভি ফুটজে (CCTV Footage) আদালতে পেশ করেছিল ইডি। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী দলের আধিকারিকরা অভিযোগ করেছিলেন, জেলের ভিতরেও প্রভাবশালী হওয়ার সুবিধা নিচ্ছেন আপ মন্ত্রী। এরপর এই বিষয়ে দিল্লির লেফটেন্যান্ট গভর্নরের নেতৃত্বে তদন্ত হয়। ব্যবস্থা নেওয়া হয় জেল সুপার-সহ বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে। এরপর আপ মন্ত্রীর ভিডিওটি প্রকাশ্যে আসায় ইডিকে আদালত অবমাননার নোটিস পাঠাল দিল্লির বিশেষ আদালত। এর আগে আদালতের নিষেধ সত্ত্বেও কী ভাবে সেলের ভিতরের সিসিটিভি ফুটেজ বিজেপির হাতে গেল, তা নিয়ে আদালতেরই দ্বারস্থ হওয়ার হুমকি দিয়েছিল আপ।

Advertisement
Next