রাজ্যে লালবাতি-নীলবাতির এত ব্যবহার! বৈধ কি? হাই কোর্টের প্রশ্নের মুখে প্রশাসন

03:21 PM Nov 22, 2022 |
Advertisement

রাহুল রায়: গাড়িতে যথেচ্ছ লালবাতি-নীলবাতির ব্যবহার নিয়ে ফের কলকাতা হাই কোর্টের (Calcutta High Court) প্রশ্নের মুখে রাজ্য সরকার। হাই কোর্টের প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চের প্রশ্ন, গাড়িতে লালবাতি ব্যবহারের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ করা যায়। রাজ্যে ক’টা মামলা হয়েছে? সোমবারের মধ্যে রাজ্যকে নিজের অবস্থান জানাতে নির্দেশ দিল হাই কোর্ট।

Advertisement

বীরভূমের তৃণমূল জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডলের গাড়িতে লালবাতি ব্যবহার নিয়ে দায়ের হয়েছিল জনস্বার্থ মামলা। এদিন সেই মামলার শুনানিতে বিচারপতিদের একগুচ্ছ প্রশ্নের মুখে পড়ে রাজ্য সরকার। প্রধান বিচারপতি জানতে চান, রাজ্যজুড়ে লালবাতি, নীলবাতি গাড়ির ব্যবহার কেন? তিনি আরও বলেন, রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় গাড়িতে লাল ও নীলবাতি ব্যবহার চোখে পড়ে। সব কি বৈধ? প্রশ্ন বিচারপতির। গাড়িতে বিনা অনুমতিতে লালবাতি ব্যবহারে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪১৯ অনুযায়ী মামলা রুজু করে পদক্ষেপ নেওয়ার কথা। রাজ্যে কত মামলা হয়েছে? জানতে চান প্রধান বিচারপতির। সোমবারের মধ্যে জানাতে হবে রাজ্যের অবস্থান।

[আরও পড়ুন: খাস কলকাতায় ভিনরাজ্যের তরুণীর রহস্যমৃত্যু, উদ্ধার গলাকাটা দেহ]

উল্লেখ্য, বীরভূমের তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডলের গাড়িতে লালবাতি কেন, সেই প্রশ্ন তুলে মামলা দায়ের হয়েছিল হাই কোর্টে। যেখানে মন্ত্রী, বিধায়ক, সাংসদরা গাড়িতে লালবাতি ব্যবহারের অনুমতি পান না। সেখানে একজন জেলা সভাপতি হয়ে অনুব্রত মণ্ডলের কিভাবে লালবাতি লাগানো গাড়ি চড়েন ? এই প্রশ্ন তুলে, বিজেপি আইনজীবী সেলের তরফে মামলা দায়ের করেন তরুনজ্যোতি তিওয়ারি। এদিন তার প্রেক্ষিতে রাজ্যের তরফে রিপোর্ট পেশ করা হয় আদালতে। তা নিয়েই অসন্তোষ প্রকাশ করে আদালত।

Advertising
Advertising

রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়, বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে কে, কারা লালবাতি ব্যবহার করতে পারেন। তবে অনুব্রতর বিরুদ্ধে রাজ্য পুলিশ কেন ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি তা রিপোর্টে স্পষ্ট করেনি রাজ্য। তাতেই অসন্তোষ প্রকাশ করে আদালত। একই সঙ্গে, গাড়ির কাঁচ কত শতাংশ পর্যন্ত কালো থাকবে তা নিয়ে কেন্দ্র ও রাজ্যের কাছে রিপোর্ট তলব করেছিল আদালত।

[আরও পড়ুন: ‘ডবল ইঞ্জিন সরকারের ডবল সুবিধা’, ৭১ হাজার বেকারকে নিয়োগপত্র দিয়ে দাবি মোদির]

Advertisement
Next