Dilip Ghosh: দলে ‘ব্রাত্য’দিলীপ! বিজেপি মহিলা মোর্চার অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিতই নন সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি

01:10 PM Jun 14, 2022 |
Advertisement

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: রাজ্য বিজেপির (BJP) মহিলা সংগঠনের উদ্যোগে রক্তদান শিবির। আর সেই শিবিরে আমন্ত্রণই জানানো হল না দলের প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি তথা বর্তমান সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষকে (Dilip Ghosh)। শুধু তাই নয়, রক্তদান শিবিরের যে ব্যানার করা হয়েছে, তাতেও দিলীপ ঘোষের ছবি নেই। ব্যানারে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও দলের সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডার ছবি রয়েছে। সেটা সমস্ত কর্মসূচিতেই থাকাটা স্বাভাবিক। তার নিচে রয়েছে রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার ও বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর ছবি। অন্যদিকে, মহিলা মোর্চার রাজ্য সভানেত্রী তনুজা চক্রবর্তী ও মহিলা মোর্চার সর্বভারতীয় সভানেত্রীর ছবি রয়েছে। কিন্তু সেখানে বাংলায় দলের সফলতম সভাপতি বর্তমানে দলের সর্বভারতীয় নেতা দিলীপ ঘোষের ছবি নেই।

Advertisement

তবে এই রক্তদান শিবিরে দিলীপ ঘোষকে আমন্ত্রণও করা হয়নি। যা এককথায় নজিরবিহীন ঘটনা। এ বিষয়ে দিলীপ ঘোষকে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি জানান, কোনও রক্তদান শিবিরের কথা তাঁর জানা নেই। বর্তমানে দিলীপ ঘোষ তাঁর সংসদীয় কেন্দ্র মেদিনীপুরে (Medinipur) রয়েছেন। দলের কর্মসূচিতে সেখানে ব্যস্ত। এদিকে, মহিলা মোর্চার রক্তদান শিবিরে দলের সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষকে আমন্ত্রণ জানানো হল না কেন? এই প্রশ্ন উঠে গিয়েছে দলের মধ্যে। পদ্মশিবিরে চর্চা শুরু হয়ে গিয়েছে। দিলীপ শিবিরের অভিযোগ, এর পিছনে রয়েছে রাজ্য বিজেপির (BJP) ক্ষমতাসীন শিবিরের কতিপয় নেতা।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: ‘ইতিহাস কীভাবে বদলে দিতে পারে’, শাহকে কটাক্ষ জোটসঙ্গী নীতীশের]

এদিন বিজেপির মহিলা মোর্চার রাজ্য কমিটির উদ্যোগে কলকাতার মাহেশ্বরী সদনে অনুষ্ঠিত হয় রক্তদান শিবিরটি। স্বাস্থ্য পরীক্ষা শিবিরেরও আয়োজন করা হয়েছিল। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদারও (Sukanta Majumder)। সমগ্র কর্মসূচিটি পরিচালনা করেন মহিলা মোর্চার রাজ্য সভানেত্রী তনুজা চক্রবর্তী। ৭৫জন মহিলা-সহ শতাধিকজন রক্তদান করেন। রক্তদাতাদের হাতে শংসাপত্র তুলে দেওয়া হয়। কিন্তু এই কর্মসূচির প্রচার ঢাকঢোল পিটিয়ে করা হলেও দিলীপ ঘোষকে কেন ডাকা হল না তা নিয়ে তুমুল হইচই শুরু হয়ে গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: ভারতীয় ফুটবলে গর্বের দিন, এএফসি এশিয়ান কাপের মূলপর্বে সুনীল ছেত্রীরা]

তবে এটা নতুন নয়, একাধিক কর্মসূচিতে রাজ্য বিজেপির ফেসবুক (Facebook) পেজেও কার্যত ব্রাত্য রাখা হচ্ছে দিলীপকে। বিভিন্ন দলীয় কর্মসূচিতে দিলীপ ঘোষের ছবি দেওয়া হচ্ছে না। দলের পুরনো নেতা-কর্মীদের অভিযোগ, দলের কেন্দ্রীয় নেতা অমিত মালব্য ও রাজ্যের সংগঠন সম্পাদক অমিতাভ চক্রবর্তীর নির্দেশেই এসব হচ্ছে।

Advertisement
Next