Advertisement

বাম আমলের মামলায় আদালতে আত্মসমর্পণ রাজ্যের মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের

06:21 PM Oct 07, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নির্দেশ মেনে আদালতে আত্মসমর্পণ করলেন রাজ্যের মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় (Subrata Mukherjee)। ফের ১৯ নভেম্বর তাঁকে হাজিরা দিতে বলা হয়েছে বলেই খবর। 

Advertisement

ঘটনার সূত্রপাত বহু বছর আগে। বামফ্রন্টের (CPM) শাসনকালে এক গাড়ির চালক বর্তমান রাজ্যের পঞ্চায়েতমন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছিলেন। বছরের পর বছর ধরে চলছে সেই মামলা। ওই মামলাতেই ৫ অক্টোবর মন্ত্রীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করে বিধাননগর বিশেষ আদালত (সাংসদ ও বিধায়কদের)। ১৬ নভেম্বরের মধ্যে আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল। সেই মামলায় এদিন আত্মসমর্পণ করলেন মন্ত্রী। 

[আরও পড়ুন: Durga Puja 2021: পুজোর সময় বাড়তি পরিষেবা ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোতেও, প্রকাশিত নতুন সময়সূচি]

এদিন সুব্রত মুখোপাধ্যায় বলেন, “আমি কিছুই বিশেষ জানি না। আইনজীবী সবটা জানেন। প্রায় ২২ বছর আগের একটা মামলা। যিনি করেছেন তিনি এখনও জীবিত কি না, সেটাও জানি না। আমাকে তলব করেই চলেছে। পুজোর পর ফের আসতে বলা হয়েছে।”

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগে নারদ কাণ্ডে (Narada Case) নাম জড়িয়েছিল রাজ্যের মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের। কয়েকমাস আগে আচমকা সুব্রত মুখোপাধ্যায়-সহ রাজ্যের দুই মন্ত্রী ও এক বিধায়ক-সহ মোট চার হেভিওয়েটের বাড়িতে হাজির হন আধিকারিকরা। আটক করে তাঁদের তুলে নিয়ে যাওয়া হয় নিজাম প্যালেসে। পরে বেলা ১১টা নাগাদ কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা জানিয়ে দেয় তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ঘটনার প্রতিবাদে খোদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) সোজা চলে যান নিজাম প্যালেসে। দীর্ঘ ছ’ঘণ্টা সেখানে ছিলেন তিনি।

[আরও পড়ুন: আউটডোরে বাড়ছে রোগীর ভিড়, সব মেডিক্যাল কলেজে চালু হবে স্পেশ্যালিস্ট ওপিডি]

Advertisement
Next