Advertisement

Rose Valley: গৌতমপত্নী ঘনিষ্ঠ প্রাক্তন ইডি কর্তাকে ডেকে পাঠাল সিবিআই আদালত

01:45 PM Jun 21, 2021 |

সুব্রত বিশ্বাস: রোজভ্যালি কাণ্ডে ইনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (Enforcement Directorate) কর্তা মনোজকুমারকে তলব করেছে সিবিআইয়ের (CBI) বিশেষ আদালত। মামলার বিশেষ তদন্তকারী অফিসার হিসেবে সোমবার কলকাতার বিচারভবনে তাঁর সাক্ষি দেওয়া কথা। উল্লেখ্য, রোজভ্যালি কাণ্ডে ইডির তরফে একসময় তদন্তকারী অফিসার ছিলেন তিনি। পরবর্তী সময় তাঁর বিরুদ্ধে রোজভ্যালি কর্তা গৌতম কুণ্ডুর স্ত্রী শুভ্রুার সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার অভিযোগ ওঠে। এমনকী, সেই ঘনিষ্ঠতার জেরে সাক্ষ্যপ্রমাণ নষ্ট করার মতোও অভিযোগ ওঠায় তাঁকে গ্রেপ্তার করেছিল কলকাতা পুলিশ। জামিন পাওয়ার পর মনোজ কুমারকে শুল্ক দপ্তরে বদলি করা হয়।

Advertisement

শুভ্রা রোজভ্যালি (Rose Valley financial scandal) কর্তা গৌতম কুন্ডুর স্ত্রী। রোজভ্যালির টাকা আত্মসাৎ এবং বিদেশে পাচারের অভিযোগে সম্প্রতি শুভ্রাকেও গ্রেপ্তার করে সিবিআই। ভুবনেশ্বরের জেলে রয়েছেন তিনি। সম্প্রতি জেলেই করোনা আক্রান্ত হয়েছেন শুভ্রা। তাই ওড়িশা হাই কোর্টে জামিনের আবেদন করেছেন। তাঁর জামিনের আবেদনের বিরোধিতা করে সিবিআই হলফনামা জমা দিয়েছে। আর সেই হলফনামাতেই নতুন করে মনোজ–শুভ্রার ‘‌ঘনিষ্ঠতার’‌ কথা উল্লেখ করা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: উত্তরবঙ্গের গেরুয়া শিবিরে বড় ভাঙন, সদলবলে তৃণমূলে যোগ আলিপুরদুয়ারের BJP সভাপতির]

শুধু তাই নয়, শুভ্র-মনোজ ঘনিষ্ঠতা নিয়ে ওড়িশার আদালতে সরাসরি অভিযোগ করেছেন সিবিআইয়ের তদন্তকারী অফিসার সোজেন শেরপা। সূত্রের খবর, গত পাঁচ বছরে তদন্তের স্বার্থে শুভ্রাকে বহুবার তলব করে তদন্ততারী সংস্থা। কিন্তু বেশিরভাগ সময়ই তিনি হাজিরা এড়িয়ছেন বলে খবর। গৌতমপত্নীর বিরুদ্ধে অসহযোগিতার অভিযোগ এনেছেন তদন্তকারীরা। অভিযোগ উঠেছে, গৌতম জেলে থাকাকালীন শুভ্রা আমানতকারীদের ১৫ কোটি টাকা আত্মসাৎ করেছেন। এমনকী, কলকাতা এবং মুম্বইতে দু’টি বিলাসবহুল ফ্ল্যাট কিনেছেন। বহুবার বিদেশে ঘুরে বেড়িয়েছেন।

সিবিআইয়ের অভিযোগ, তদন্ত চলাকালীন তদন্তকারী সংস্থাকে প্রভাবিত করার চেষ্টা করেছিলেন শুভ্রা। আর তাই মনোজের সঙ্গে তাঁর ঘনিষ্ঠতা। এমনকী, তদন্ত চলাকালীন দু’টি মোবাইল ফোন বাজেয়াপ্ত করা হয়েছিল। সূত্রের খবর, বর্তমানে সেই মোবাইল দু’টির হদিশ নেই। শুভ্রার সঙ্গে ঘনিষ্ঠতার জেরেই মোবাইলগুলি নষ্ট করা হয়েছে বলে সূত্রের দাবি।

[আরও পড়ুন: ভোট পরবর্তী হিংসা মামলা: খারিজ রাজ্যের আরজি, জাতীয় মানবাধিকার কমিশনকেই দায়িত্ব হাই কোর্টের]

Advertisement
Next