Advertisement

WB By-Election: ৭ বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচনের দাবি, হাই কোর্টে দায়ের জনস্বার্থ মামলা

07:09 PM Sep 04, 2021 |
Advertisement
Advertisement

শুভঙ্কর বসু: ভবানীপুর-সহ (Bhabanipur) রাজ্যের ৭টি বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচনের দাবিতে এবার জনস্বার্থ মামলা (PIL) দায়ের হল কলকাতা হাই কোর্টে (Calcutta HC)। আগামী সপ্তাহে ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দল এবং বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজের ডিভিশন বেঞ্চে মামলার শুনানির সম্ভাবনা রয়েছে। মামলাকারী আইনজীবী রমাপ্রসাদ সরকারের দাবি, কোনও বিধানসভা কেন্দ্রে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি না থাকলে সেখানে ছ’মাসের মধ্যে ভোট করানো বাধ্যতামূলক। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভা ভোটের (WB Assembly Polls 2021)ফলপ্রকাশের পর প্রায় চার মাস কেটে গেলেও উপনির্বাচন (By election) নিয়ে কোনও তৎপরতা দেখা যাচ্ছে না। অবিলম্বে নির্বাচন করতে কমিশন যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণ করুক, সেই দাবিও জানানো হয়েছে মামলার বয়ানে। শুধুমাত্র নির্বাচন কমিশনই নয়। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক, রাজ্যের মুখ্যসচিব, স্বরাষ্ট্রসচিব ও মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিককে মামলায় পক্ষ করার আবেদন জানাবেন মামলাকারী।

Advertisement

উপনির্বাচন নিয়ে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের কাছে মতামত জানতে চেয়েছিল কমিশন (Election Commission)। সেই মতো বিভিন্ন রাজনৈতিক দল নিজেদের মতামত জানিয়েছে। বুধবার বাংলা, অসম (Assam), তামিলনাড়ু-সহ কয়েকটি রাজ্যের মোট ১৭টি আসনের উপনির্বাচন নিয়ে রাজ্যের আধিকারিক এবং রাজ্য নির্বাচন কমিশনের কর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করেছে কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিশন। সূত্রের খবর, উপনির্বাচন নিয়ে একেক রাজ্য একেক রকম মতামত দিয়েছে। পশ্চিমবঙ্গ সাফ জানিয়ে দিয়েছে, এ রাজ্যে এখনই ভোট করালে ভাল হয়।

[আরও পড়ুন: ৬০% নম্বরেই এবার মিলবে বিবেকানন্দ স্কলারশিপ, কৃতীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর]

সূত্রের খবর, শুক্রবারের বৈঠকে সব রাজ্যের এবং বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের দেওয়া মতামত নিয়ে আলোচনা হতে পারে। সেইসঙ্গে আলোচনা করা হবে বিভিন্ন রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে। আইসিএমআর-সহ (ICMR) যে সব এজেন্সি মহামারী পরিস্থিতির উপর নজর রাখছে, তাদের কাছেও তথ্য নেওয়া হবে। ভোটমুখী কেন্দ্রগুলিতে টিকাকরণের গতি সম্পর্কেও তথ্য নেবে কমিশন। সবদিক বিবেচনা করেই উপনির্বাচন নিয়ে ঐকমত্যে পৌঁছাতে চায় কমিশন কর্তারা।

[আরও পড়ুন: সিমবক্স-সহ রাজ্য পুলিশের STF’এর জালে বাংলাদেশী-সহ ৩, নেপথ্যে আন্তর্জাতিক চক্র?]

জয়ী বিধায়কদের পদত্যাগ এবং মৃত্যুর কারণে রাজ্যের ৫টি কেন্দ্র এই মুহূর্তে বিধায়কশূন্য। আর মুর্শিদাবাদের দুটি কেন্দ্রে ভোটের আগে প্রার্থীদের মৃত্যুর জন্য বিধানসভা ভোটেরই আয়োজন করা যায়নি। সব মিলিয়ে সাত কেন্দ্রে নির্বাচন হওয়ার কথা নভেম্বরের মধ্যে। এর মধ্যে ভবানীপুর, খড়দহ, গোসাবা, শান্তিপুর এবং দিনহাটায় উপনির্বাচন হওয়ার কথা। জঙ্গিপুর, সামশেরগঞ্জে সাধারণ নির্বাচন হওয়ার কথা। তবে, সবচেয়ে বেশি নজর রয়েছে ভবানীপুর কেন্দ্রে। কারণ ওই কেন্দ্র থেকেই নির্বাচনে লড়বেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

Advertisement
Next