Advertisement

১১ দিনের রক্তক্ষয়ী লড়াইয়ের পর যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করল ইজরায়েল ও হামাস

02:47 PM May 21, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রায় এগারো দিন ধরে চলা তুমুল লড়াই শেষে যুদ্ধবিরতি ঘোষণা করল ইজরায়েল (Israel) ও প্যালেস্তাইনের জঙ্গি সংগঠন হামাস। গতকাল এই বিষয়ে দুই পক্ষ সহমত হলেও শুক্রবার অর্থাৎ আজ থেকে বলবৎ হচ্ছে সংঘর্ষবিরতি চুক্তি।

Advertisement

[আরও পড়ুন: দারুন সাফল্য ইজরায়েলী সেনার, ৫ দিনে ছিন্নভিন্ন হামাসের সুড়ঙ্গের জাল]

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, মিশরের মধ্যস্থতায় এই যুদ্ধবিরতি সম্ভব হয়েছে। গতকাল ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহুর দপ্তর জানায় যে বিনাশর্তে যুদ্ধবিরতির পক্ষে মত দিয়েছে প্রতিরক্ষা ক্যাবিনেট। তবে সংঘর্ষবিরতি ঘোষণার পরও গাজা থেকে ইজরায়েলের উদ্দেশে রকেট উড়ে আসে বলে খবর। ফলে এই চুক্তি আদৌ টিকবে কি না, তা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ আছে। লড়াই থামাতে গত বুধবার নেতানিয়াহুর কাছে আরজি জানান মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। একইসঙ্গে যুদ্ধ থামাতে মধ্যস্থতা করার প্রস্তাব দেয় মিশর, কাতার ও রাষ্ট্রসংঘ। এই যুদ্ধবিরতি নিয়ে হামাস জানিয়েছে, ইজরায়েল শর্ত মেনে চললে তারাও হামলা চালাবে না। জঙ্গি সংগঠনটির মুখপাত্র তাহের আল-নন এক বিবৃতি জারি করে জানায়, “প্যালেস্তাইনের বিদ্রোহীরা যুদ্ধবিরতির শর্ত মানবে যদি তা হানাদার ইজরায়েলি বাহিনী মেনে চলে।” এদিকে, ইজরায়েল ও প্যালেস্তাইনের কাছে প্রতিনিধি দল পাঠিয়ে শান্তি বজায় রাখার চেষ্টা করছেন মিশরের প্রেসিডেন্ট ফতাহ আল-সিসি।

উল্লেখ্য, প্রায় ২০ লক্ষ মানুষের বাসস্থান গাজা শহর চরম ক্ষতির মুখে পড়েছে। প্রায় ৫০০টি বহুতল বিমান হানায় ভেঙে গুঁড়িয়ে গিয়েছে। মঙ্গলবার থেকে ত্রাণ নিয়ে আসা ট্রাক গাজায় ঢুকতে দিচ্ছে না ইজরায়েলের সেনাবাহিনী। এপর্যন্ত সংঘর্ষে প্যালেস্তাইনের ২১২ জন নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। ইজরায়েল লক্ষ করে কমপক্ষে ৩ হাজার রকেট ছুঁড়েছে হামাস। এতে মৃত্যু হয়েছে ইহুদি দেশটির অন্তত ১২ জন নাগরিকের। সব মিলিয়ে এখনও পরিস্থিতি শান্ত হয়নি। যুদ্ধবিরতি কতক্ষণ টিকবে তা নিয়েও সন্দেহ রয়েছে বিশ্লেষকদের মনে। 

দেখুন ভিডিও: 

[আরও পড়ুন: মেলেনি সুফল! কোভিড চিকিৎসায় রেমডেসিভির প্রয়োগের বিপক্ষে WHO]

Advertisement
Next