Advertisement

লক্ষ্য দ্রুত করোনার প্রতিষেধক তৈরি, বিদেশি সংস্থাকে বড়সড় অনুদান লক্ষ্মী মিত্তলের

08:49 AM Jul 11, 2020 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: টাটা, প্রেমজি, জিন্দালদের পর এবার করোনা রুখতে বড়সড় অনুদান ভারতীয় শিল্পপতি লক্ষ্মী মিত্তলের ( Lakshmi Mittal)। দ্রুত করোনার টিকা তৈরির লক্ষ্যে অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির ভ্যাকসিনোলজি বিভাগকে ৩.৫ মিলিয়ন ইউরো দান করলেন তিনি। ভারতীয় মুদ্রায় যার অর্থমূল্য প্রায় ৩ হাজার ৩০০ কোটি টাকা।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

করোনার প্রতিষেধক তৈরির লক্ষ্যে বিশ্বজুড়ে অক্লান্ত পরিশ্রম করছেন বিজ্ঞানীরা। একসঙ্গে বহু সংস্থা এই মারণ ভাইরাস রুখতে গবেষণা চালাচ্ছে। তবে এই গবেষণায় সবচেয়ে বেশি অগ্রগতি ঘটিয়েছে এই অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির ভ্যাকসিনোলজি বিভাগ (Oxford Vaccinology)। গবেষকদের দাবি, তাঁদের তৈরি করোনার সম্ভাব্য প্রতিষেধক ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের চূড়ান্ত পর্বে দাঁড়িয়ে আছে। করোনাভাইরাসকে কাবু করতে এই ভ্যাকসিন কতটা কার্যকরী, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ভ্যাকসিনটির নাম ChAdOx1 nCoV-19। ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের চূড়ান্ত পর্যায়ে ব্রিটেনের ১০ হাজারেরও বেশি শিশুর উপর এই সম্ভাব্য টিকা প্রয়োগ করা হবে।

[আরও পড়ুন: শুধু বাংলা নয়, করোনায় মৃত্যুমিছিল রুখতে ফের কড়া লকডাউনের পথে দেশের একাধিক রাজ্য]

এই পরিস্থিতিতে অর্থাভাবে গবেষণার কাজ যাতে থমকে না যায়, তা নিশ্চিত করতেই সংস্থাটিকে ৩ হাজার ৩০০ কোটি টাকা দান করলেন ভারতীয় ব্যবসায়ী। মিত্তলের এই বিপুল অনুদানের পর, সংস্থাটির একটি গুরুত্বপূর্ণ বিভাগের নাম পালটে লক্ষ্মী মিত্তল অ্যান্ড ফ্যামিলি প্রফেসরশিপ অফ ভ্যাকসিনোলজি রাখা হয়েছে। ভারতীয় শিল্পপতির আশা, তাঁর দেওয়া অনুদান কাজে লাগিয়ে সংস্থাটি দ্রুত করোনার কার্যকরী প্রতিষেধক আবিষ্কার করে মানবজাতিকে এই অদৃশ্য শত্রুর হাত থেকে রক্ষা করবে।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন: বিকাশ দুবে এনকাউন্টার: গরুর পালকে পাশ কাটাতে গিয়ে উলটে যায় গাড়ি, STF’এর দাবিতে বিতর্ক]

এর আগে করোনা মোকাবিলায় রতন টাটার দুই সংস্থা টাটা সন্স এবং টাটা ফাউন্ডেশনের তরফে যৌথভাবে ১৫০০ কোটি টাকার অনুদান ঘোষণা করা হয়। মুকেশ আম্বানির রিলায়েন্স গ্রুপ ঘোষণা করে ৫০০ কোটি টাকা। জিন্দালদের তরফ থেকে ঘোষণা করা হয় ১০০ কোটি টাকা। আজিম প্রেমজির (Azim Premji) সঙ্গে যুক্ত ৩ সংস্থা মিলিয়ে মোট ১১২৫ কোটি টাকা দান অনুদান ঘোষণা করে। তবে এঁরা সবাই ভারত সরকার বা এদেশে নিজেদের ট্রাস্টের মাধ্যমে এই অর্থ ব্যয় করেছেন।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

The post লক্ষ্য দ্রুত করোনার প্রতিষেধক তৈরি, বিদেশি সংস্থাকে বড়সড় অনুদান লক্ষ্মী মিত্তলের appeared first on Sangbad Pratidin.

Advertisement
Next