থাইল্যান্ডের নাইট ক্লাব যেন জতুগৃহ! জ্বলন্ত শরীরেই দৌড় বহু মানুষের, মৃত অন্তত ১৩

06:51 PM Aug 05, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: থাইল্যান্ডের নাইট ক্লাবে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড। আগুনে পুড়ে প্রাণ হারিয়েছেন কমপক্ষে ১৩ জন। আহত হয়েছেন আরও অন্তত ৪১। আহতদের অনেকেরই অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

Advertisement

বিবিসি সূত্রে খবর, দক্ষিণ পূর্ব থাইল্যান্ডের (Thailand) চনবুরি প্রদেশে এই ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডটি ঘটেছে। বৃহস্পতিবার রাত ১১.৩০ নাগাদ সাত্তাহিপ জেলার ‘মাউন্টেন বি নাইটস্পট’ নামের একটি নাইট ক্লাবে আগুন লাগে। মুহূর্তে বিনোদনের আসরটিকে গ্রাস করে লেলিহান শিখা। নেটদুনিয়ায় ছড়িয়ে পড়া ভিডিওয় দেখা যাচ্ছে, ধোঁয়ার মধ্যে ভিড়ে ঠাসা ক্লাব থেকে বেরনোর জন্য হুড়োহুড়ি পড়ে যায়। বেশ কয়েকজনের কাপড়ে আগুন ধরে যায়। জ্বলন্ত শরীর নিয়ে তাঁদের দেখা যায় ছুটে বেরিয়ে যেতে। গোটা ঘটনাস্থলেই এক নারকীয় পরিবেশ তৈরি হয়। প্রায় দু’ ঘণ্টা আপ্রাণ চেষ্টার পর আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হন দমকল কর্মীরা।

[আরও পড়ুন: তাইওয়ানকে ঘিরে সামরিক মহড়া চিনের, জাপানের সমুদ্রে আছড়ে পড়ল লালফৌজের মিসাইল]

এই ঘটনায় চনবুরি প্রদেশের পুলিশ কর্নেল উত্তিপং সোমজাই বলেন, “রাত একটা নাগাদ আমাদের কাছে আগুন লাগার খবর আসে। দ্রুত সেখানে পৌঁছই। কী ভাবে আগুন লাগল, তা এখনও পরিষ্কার নয়। এখনও পর্যন্ত যা খবর পেয়েছি, মৃত ও আহতরা সকলেই থাইল্যান্ডের বাসিন্দা। বাইরের কেউ ছিলেন না।” ঘটনায় শোকপ্রকাশ করেছেন থাইল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী প্রায়ুথ চান-ওচা। নিহতদের পরিবারকে সরকার আর্থিক সাহায্যে করবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

Advertising
Advertising

ব্যাংকক (Bangkok) থেকে প্রায় ১৫০ কিলোমিটার দূরে ঘটা এই অগ্নিকাণ্ডে গোটা দেশ স্তব্ধ। কীভাবে এই ঘটনা ঘটেছে তার কারণ জানতে তদন্ত শুরু করা হয়েছে বলে জানিয়েছে প্রশাসন। সূত্রের খবর, আগুন লাগার সময় ওই নাইট ক্লাবে অন্তত ৮০ জন উপস্থিত ছিলেন। আগুনের তাণ্ডবের মধ্যেও কয়েকজন সুরক্ষিত ভাবে বেরিয়ে আসতে পেরেছিলেন। শর্ট সার্কিট থেকেই আগুন লেগেছে কি না, খতিয়ে দেখা হচ্ছে। মৃতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা।

[আরও পড়ুন: মার্কিন অস্ত্রে লড়াই চালালেও যুদ্ধ থামাতে ‘শক্তিশালী’ চিনের শরণাপন্ন জেলেনস্কি!]

Advertisement
Next