Advertisement

‘৯৫ শতাংশ ভারতীয়র পেট্রলের প্রয়োজনই নেই’, আজব সাফাই উত্তরপ্রদেশের মন্ত্রীর

04:05 PM Oct 22, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দেশজুড়ে বাড়ছে পেট্রল-ডিজেলের দাম (Petrol-Diesel Price)। আর পেট্রপণ্যের দাম যত বাড়ছে, ততই দুশ্চিন্তা বাড়ছে মধ্যবিত্তেরও। কারণ এতে বাড়বে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দামও। কিন্তু এই প্রসঙ্গে বক্তব্য রাখতে গিয়েই বিতর্কিত বক্তব্য রাখলেন উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) মন্ত্রী উপেন্দ্র তিওয়ারি। তাঁর মতে, দেশে অধিকাংশ মানুষেরই পেট্রলের প্রয়োজন নেই। কারণ খুব সংখ্যক মানুষেরই চার চাকা রয়েছে।

Advertisement

পশ্চিম উত্তরপ্রদেশের জালাউনে একটি অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে সাংবাদিকদের উদ্দেশে উপেন্দ্র তিওয়ারি বলেন, বিরোধীদের আসলে সরকারের বিরুদ্ধে অভিযোগ তোলার মতো কোনও ইস্যুই নেই। তাই তাঁরা এসব প্রসঙ্গ তুলছে। তিনি আরও বলেন, “২০১৪ সাল এবং এখনকার পরিসংখ্যান দেখুন। মোদিজি এবং যোগীজির সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে দেশের জনপ্রতি আয় দ্বিগুণ হয়েছে। পেট্রল-ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির ক্ষেত্রে বলা যায়, দেশের খুব সংখ্যক মানুষই চার চাকা ব্যবহার করেন, তাই পেট্রলের প্রয়োজনও খুব কম লোকের। অর্থাৎ দেশের ৯৫ শতাংশ মানুষেরই পেট্রলের প্রয়োজন পড়ে না।”

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

 

[আরও পড়ুন: লিঙ্গবৈষম্যের বিরুদ্ধে জয়, সেনাবাহিনীতে স্থায়ী কমিশন পেলেন ৩৯ মহিলা সেনা আধিকারিক]

এরপরই তাঁর এই বক্তব্য নিয়ে তীব্র বিতর্ক দেখা দেয়। অনেকেই বিজেপি মন্ত্রীর এই বক্তব্যে নিন্দা করেন। পরবর্তীতে মুখ খুলেছেন সমাজবাদী পার্টির প্রধান তথা উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব। টুইঠে উপেন্দ্র তিওয়ারিকে তীব্র বাক্যবাণে বিদ্ধ করেছেন।

অখিলেশ লেখেন, “উত্তরপ্রদেশের বিজেপি মন্ত্রী মনে করেন পেট্রলের মূল্যবৃদ্ধি সাধারণ মানুষের উপর কোনও প্রভাব ফেলে না। কারণ ৯৫ শতাংশ মানুষেরই নাকি পেট্রলের প্রয়োজন পড়ে না। এবার ওই মন্ত্রীরও আসলে পেট্রলের প্রয়োজন পড়বে না। কারণ মানুষ তাঁকেই ক্ষমতাচ্যুত করবে। সত্যি কথা হল ৯৫ শতাংশ মানুষই আর বিজেপিকে চায় না।”

[আরও পড়ুন: আম্বানি ও আরএসএস নেতার ফাইল পাস করাতে ৩০০ কোটির প্রস্তাব! বিস্ফোরক মেঘালয়ের রাজ্যপাল]

Advertisement
Next