Advertisement

Taliban Terror: আতঙ্কিত আফগানিস্তান, প্রাণ বাঁচাতে দিল্লিতে আশ্রয় কান্দাহারের পুলিশ প্রধানের

01:59 PM Aug 18, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আফগানিস্তান (Afghanistan) এখন তালিবানের দখলে। তবে 'সকলকে ক্ষমা করার' আশ্বাস দিয়েছে জঙ্গিগোষ্ঠীটি। কিন্তু বাস্তবে পরিস্থিতি ভিন্ন। তালিবান রাজত্বের প্রথম দিনই একের পর এক নির্যাতনের ছবি আসতে থাকে প্রকাশ্যে। আর পরিস্থিতির আঁচ পেয়েই দিল্লিতে আশ্রয় নিয়েছেন কান্দাহারের পুলিশ প্রধান জেনারেল তাদিন খান আশকজাই।

Advertisement

[আরও পড়ুন: Afghanistan Crisis: চিন্তা বাড়াচ্ছে কাবুলের পরিস্থিতি, শাহ-ডোভালকে নিয়ে জরুরি বৈঠকে PM Modi]

গত শনিবার প্রায় বিনাযুদ্ধেই গোটা কান্দাহার দখল করে তালিবান (Taliban) জঙ্গিরা।অত্যাধুনিক অস্ত্রের সম্ভার ফেলে ময়দান ছেড়ে পালিয়ে যায় 'আফগান ন্যাশনাল আর্মি' বা সরকারি বাহিনীর জওয়ানরা। স্থানীয় প্রশাসনও জেহাদিদের হাতে শহরের চাবি তুলে দেয়। তারপরই বেগতিক দেখে প্রাণ বাঁচাতে রবিবার রাতে শ’দুয়েক আফগান দিল্লিতে পালিয়ে আসেন। তাঁদের মধ্যে অন্যতম ৩৭ বছর বয়সি জেনারেল আশকজাই। তবে বর্তমানে তিনি কোথায় রয়েছেন তা নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে। তালিবান বিরোধী এককালের এই দাপুটে পুলিশ প্রধানের বর্তমান ঠিকানা প্রকাশ্যে আনতে নারাজ সাউথ ব্লক। আর তা নিয়ে ভারতে আশ্রয় নেওয়া আফগানদের মধ্যে উদ্বেগ ছড়িয়েছে। জানা গিয়েছে, কান্দাহারে তালিবানের হামলার সময় কোনও মতে প্রাণ বাঁচাতে সক্ষম হন জেনারেল আশকজাই। তারপরই কাবুল হয়ে সোজা চলে আসেন ভারতে।

দেশ ছাড়ার জন্য হুড়োহুড়ি।

তাঁর সঙ্গে আসা এক আফগান আধিকারিক জানিয়েছেন, আফগানিস্তানের যা পরিস্থিতি তা মানতে পারছেন না এই প্রাক্তন পুলিশ অফিসার। মানসিক ভাবে বিধ্বস্ত তিনি। ইতিমধ্যেই আশকজাই পরিবারের অনেক সদস্যকে হত্যা করেছে তালিবান। পরিস্থিতি অত্যন্ত জটিল হয়ে ওঠায় বাকিদের সঙ্গে আনতে পারেননি। বিপদ এড়াতে এখন আলাদা আলাদা করে তাঁদের আনার ব্যবস্থা হচ্ছে। বলে রাখা ভাল, জেনারেল তাদিন খান আশাকজাই হলেন প্রয়াত আফগান জেনারেল আবদুল রাজিকের ভাই। যিনি কান্দাহারে তালিবানের সঙ্গে সরকার পক্ষের হয়ে যুদ্ধ করেছেন। ২০১৮ সালে মৃত্যুর আগে পর্যন্ত কান্দাহার শাসন করেছেন তিনি। নব্বইয়ের দশকে কান্দাহার ছিল তালিবানের সদর কার্যালয়। পরবর্তী কালে আমেরিকান সেনাদের প্রধান ঘাঁটি হয় আফগানিস্তানে। কিন্তু বর্তমানে কান্দাহারে ফের রাজত্ব কায়েম করেছে জেহাদিরা।

উল্লেখ্য, তালিবানি হামলার মুখ থেকে বাঁচতে এর আগেও ভারতে বহু আফগান আশ্রয় নিয়েছেন। তবে এবারের পরিস্থিতি আরও জটিল। সূত্রের খবর, আফগান সরকারের বেশ কয়েকজন শীর্ষ আমলা নয়াদিল্লিতে পৌঁছেছেন। বিশ্বের অন্য গণতান্ত্রিক দেশগুলি কী পদক্ষেপ করে, তা দেখার জন্য অপেক্ষা করছে ভারতও। সমস্ত বিমান যোগাযোগ বন্ধ করলেও সেখানে আটকে থাকা নাগরিকদের জরুরি ভিত্তিতে দেশে ফেরানোর তোড়জোড় চালাচ্ছে ভারত। বিশেষ বিমান পাঠিয়ে কাবুল থেকে ভারতীয়দের নিরাপদে ফেরাচ্ছে দিল্লি। এই পরিস্থিতিতে সেখানকার সামগ্রিক সংকট বুঝে ভারতের আশু কর্তব্য স্থির করতে মঙ্গলবার সন্ধেবেলা নিজের বাড়িতে নিরাপত্তা বিষয়ক ক্যাবিনেট কমিটিকে নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। সবমিলিয়ে এই মুহূর্তে সাউথ ব্লকে উত্তেজনা।

[আরও পড়ুন: Afghanistan নিয়ে উদ্বিগ্ন ভারত, মার্কিন বিদেশ সচিবের সঙ্গে জরুরি আলোচনায় জয়শংকর]

Advertisement
Next