Advertisement

প্যালেস্তাইনকে সমর্থন করাটা অপরাধ হতে পারে না’, কাশ্মীরে জোড়া গ্রেপ্তারির বিরুদ্ধে সরব মেহবুবা

09:46 PM May 16, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গোটা বিশ্বের নজর এই মুহূর্তে প্যালেস্তাইন-ইজরায়েল সংঘর্ষের দিকে। এই পরিস্থিতিতে কাশ্মীরে (Kashmir) দু’জন কে গ্রেপ্তার করা হয়েছে প্যালেস্তাইনকে (Palestine) সমর্থন করার জন্য। এই গ্রেপ্তারির বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানালেন জম্মু ও কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি (Mehbooba Mufti)। তাঁর মতে, ‘‘প্যালেস্তাইনকে সমর্থন করাটা কোনও অপরাধ হতে পারে না।’’ যদিও কাশ্মীর পুলিশের দাবি, অভিযুক্তরা হিংসায় উসকানি দিচ্ছিল।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

জানা যাচ্ছে, যে দু’জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তাঁদের মধ্যে একজন ৩২ বছরের শিল্পী মুদাসির গুল। তিনি একটি গ্র্যাফিত্তি তৈরি করেন ‘আমরা প্যালেস্তাইন’ লিখে। অন্যজন সর্জন বরকতি মুসলিম ধর্মগুরু। তিনি স্থানীয় এক মসজিদে প্যালেস্তাইনের উপরে ইজরায়েলের (Israel) বিমান হামলার নিন্দা করেছিলেন। এই গ্রেপ্তারি প্রসঙ্গে মুখ খুলেছেন মুফতি। তাঁর কথায়, ‘‘সারা পৃথিবীর মানুষ প্যালেস্তাইনের উপরে ইজরায়েলের নৃশংসতার নিন্দা করছে। কিন্তু কাশ্মীরে এটা একটা শাস্তিযোগ্য অপরাধ! এক শিল্পী ও এক ধর্মগুরুকে আটক করা হয়েছে কেবল প্যালেস্তানিদের সমর্থন করায়।’’ তিনি দাবি করেন, কাশ্মীর একটি ‘খোলা আকাশের নিচে কারাগার’। এখানে প্রতিটি মানুষের ভাবনাচিন্তার দিকে নজর রাখা হয়। প্রয়োজনে শাস্তিও দেওয়া হয়।

[আরও পড়ুন: ‘আমাকেও গ্রেপ্তার করুন’, দিল্লিতে সরকার বিরোধী পোস্টার বিতর্কে গর্জে উঠলেন রাহুল]

প্রসঙ্গত, গ্রেপ্তার হওয়া মুসলিম ধর্মগুরু বরকতির বিরুদ্ধে এর আগে ভারত-বিরোধী ভাষণ দেওয়া ও মিছিল বের করার অভিযোগ উঠেছিল। পরে তাঁকে জন নিরাপত্তা আইনে গ্রেপ্তার করা হয়। ২০২০ সালের অক্টোবরে মুক্তি পেয়েছেন তিনি। জম্মু ও কাশ্মীরের পুলিশের দাবি, প্যালেস্তাইনের প্রসঙ্গ তুলে মানুষকে প্ররোচিত করা ও শান্তির পরিবেশ নষ্ট করার চেষ্টার জন্যই ওই গ্রেপ্তারি। কাশ্মীরের আইজি বিজয় কুমার জানিয়েছেন, ‘‘মতপ্রকাশের স্বাধীনতা নিশ্চয়ই আছে। কিন্তু হিংসায় উসকানি দেওয়া বেআইনি।’’

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

উল্লেখ্য, দেখতে দেখতে প্রায় এক সপ্তাহ হয়ে গেলেও কিন্তু ইজরায়েলের সঙ্গে প্যালেস্তাইনের (Palestine) সংঘর্ষ থামার যেন কোনও লক্ষণই নেই। এরই মধ্যে গাজা শহরের উপরে ইজরায়েলের (Israel) বিমান হানায় অন্তত ২৬ জনের প্রাণ গেল রবিবার। জখম কমপক্ষে ৫০। এখনও পর্যন্ত এই সংঘর্ষে অন্তত ১৮১ জন প্যালেস্তানির মৃত্যু হয়েছে। অন্যদিকে হামাসের হামলায় ইজরায়েলের ৮ জনের প্রাণ গিয়েছে।

[আরও পডুন: এবার পণ্য পরিবহণের জন্য লাগবে ই-পাস, জেনে নিন আবেদনের পদ্ধতি]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next