স্ত্রীর বয়স ১৮ হলে বৈবাহিক ধর্ষণ ‘অপরাধ নয়’, পর্যবেক্ষণ হাই কোর্টের

10:56 AM Dec 09, 2023 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: স্ত্রীর বয়স যদি ১৮ বছর কিংবা তার বেশি হয়, তাহলে আইন অনুযায়ী বৈবাহিক ধর্ষণ অপরাধ নয়। এমনই পর্যবেক্ষণ এলাহাবাদ হাই কোর্টের। স্ত্রীর বিরুদ্ধে ‘অপ্রাকৃতিক অপরাধে’র একটি মামলায় এক ব্যক্তিকে নির্দোষ ঘোষণা করে হাই কোর্ট। সেই মামলার শুনানির সময়ই এহেন পর্যবেক্ষণ উচ্চ আদালতের।

Advertisement

এলাহাবাদ হাই কোর্টের (Allahabad High Court) বিচারপতি রাম মনোহর নারায়ণ মিশ্রর বেঞ্চ জানায়, ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৭ নম্বর ধারায় ওই ব্যক্তিকে দোষী বলা চলে না। এর পরই বলা হয়, ভারতের আইনে বৈবাহিক ধর্ষণ এখনও পর্যন্ত অপরাধ নয়। সঙ্গে উচ্চ আদালত এও মন্তব্য করে যে, বৈবাহিক ধর্ষণের বিষয়টি অপরাধের আওতায় ফেলা হবে কি না, সেই সংক্রান্ত মামলা এখনও সুপ্রিম কোর্টের বিচারাধীন। বিশেষ করে স্ত্রী যদি প্রাপ্তবয়স্ক হয়। অর্থাৎ ১৮ বছর কিংবা তার বেশি বয়স হলে এক্ষেত্রে স্বামীকে কোনও প্রকার শাস্তি কিংবা জরিমানা করা যায় না।

[আরও পড়ুন: লোকসভা ভোটের আগে নয়া ট্রেন পেল উত্তরবঙ্গ, X হ্যান্ডলে ঘোষণা সাংসদ সুকান্তর]

সুপ্রিম কোর্ট এই বিষয় নিয়ে কী রায় দেয়, তার উপরই নির্ভর করবে হাই কোর্টের পরবর্তী পদক্ষেপ।
এর আগে মধ্যপ্রদেশ হাই কোর্টের পর্যবেক্ষণকে সমর্থন করেছিল এলাহাবাদ হাই কোর্ট। জানা হয়েছিল, বৈবাহিক সম্পর্কে কোনও ‘অপ্রাকৃতিক অপরাধ’ হওয়ার জায়গাই নেই। স্ত্রীকে শারীরিক এবং মানসিক অত্যাচার করলেও ৩৭৭ নম্বর ধারায় তাঁর শাস্তি হবে না। তাই ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪৯৮-এ এবং ৩২৩ নম্বর ধারায় দোষী সাব্যস্ত করা হলেও ৩৭৭ নম্বর ধারায় বেকসুর খালাস করা হয়েছে ওই ব্যক্তিকে।

[আরও পড়ুন: ইসলামিক স্টেটের শিকড় উপড়ে ফেলতে ৪১টি জায়গায় অভিযান NIA-এর, গ্রেপ্তার ১৫]

Advertisement
Next