গান্ধী হত্যাকারী গডসে দেশভক্ত, ফের বিতর্কিত মন্তব্য সাধ্বী প্রজ্ঞার

05:09 PM May 16, 2019 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নির্বাচনের মরশুমে ফের মাথাচাড়া দিয়ে উঠল গান্ধী-গডসে বিতর্ক। কমল হাসানের সন্ত্রাসবাদী মন্তব্য নিয়ে এমনিতেই তোলপাড় হচ্ছিল জাতীয় রাজনীতি। এবার বিজেপি নেত্রী তথা ভোপাল কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী সাধ্বী প্রজ্ঞা জাতির জনক মহাত্মা গান্ধীর হত্যাকারীকে দেশভক্ত বলে বসলেন। সাধ্বীর বক্তব্য, গডসে দেশভক্ত ছিলেন, আছেন এবং থাকবেন। বিজেপি প্রার্থীর এই মন্তব্য নিয়ে শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন: ‘ঐতিহাসিক সত্য বলেছি’, গডসেকে ‘সন্ত্রাসবাদী’ বলা নিয়ে সাফাই কমল হাসানের]

কদিন আগেই তামিলনাড়ুর আরাভাকুরুচিতে এক জনসভায় কমল হাসান বলেন, “মুসলিম অধ্যুষিত এলাকায় এসেছি বলে আমি একথা বলছি না৷ আমি একথা বলছি কারণ আমি গান্ধীজির মূর্তির সামনে দাঁড়িয়ে রয়েছি৷ স্বাধীন ভারতের প্রথম সন্ত্রাসবাদী হল হিন্দু৷ এবং তার নাম নাথুরাম গডসে৷” কমল হাসানের মন্তব্য নিয়ে শোরগোল পড়ে যায়। অভিনেতা তথা নেতা কমলকে রীতিমতো আক্রমণ শানাতে থাকে গেরুয়া শিবির। এই মন্তব্যের জন্য বিজেপি তাঁর শাস্তির দাবি করে। ইতিমধ্যেই অভিনেতার নামে মামলাও দায়ের হয়েছে। চাপে পড়ে নিজের বক্তব্যের স্বপক্ষে যুক্তিও দিয়েছেন অভিনেতা। তিনি সাফাই দিয়ে বলেন, “যা ঐতিহাসিকভাবে সত্যি তাই বলেছি। তবে, আমার মন্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা করা হচ্ছে।”

[আরও পড়ুন: মণিশংকরের পর দিগ্বিজয়, প্রধানমন্ত্রীকে কুরুচিকর আক্রমণ কংগ্রেস নেতার]

কমলের বক্তব্য নিয়ে বিতর্ক এখনও চলছেই। এবার পালটা এল ভোপালের বিজেপি প্রার্থী তথা গেরুয়া শিবিরের হিন্দুত্ববাদী মুখ সাধ্বী প্রজ্ঞার কাছ থেকে। তিনি বললেন,”নাথুরাম গডসে আগেও দেশভক্ত ছিলেন। এখনও তিনি দেশভক্ত এবং আগামী দিনেও দেশভক্তই থাকবেন। যারা তাঁকে সন্ত্রাসবাদী বলছে, জঙ্গি বলছে, তাদের ভেবেচিন্তে কথা বলা উচিত। এই মানুষগুলো ভোটবাক্সে এর জবাব পাবেন।” সাধ্বীর এই মন্তব্যের পালটা এসেছে কংগ্রেস শিবির থেকে। কংগ্রেস নেতা রাজীব শুক্লা বলছেন, এটাই বিজেপির মানসিকতা। এই মন্তব্য নিন্দনীয়। বিজেপি ভোটবাক্সে এর জবাব পাবে।

Advertising
Advertising

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

The post গান্ধী হত্যাকারী গডসে দেশভক্ত, ফের বিতর্কিত মন্তব্য সাধ্বী প্রজ্ঞার appeared first on Sangbad Pratidin.

Advertisement
Next