Advertisement

‘তৃণমূলকে বিপাকে ফেলতে CBI, ED ব্যবহার করছে কেন্দ্র’, তীব্র আক্রমণ Sukhendu Sekhar Roy-এর

07:49 PM Sep 03, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কয়লা কাণ্ডে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের স্ত্রী রুজিরাকে তলব, ভোট পরবর্তী হিংসার (Post Poll Violence) অভিযোগ-সহ একাধিক ইস্যুতে কেন্দ্রকে তীব্র আক্রমণ করলেন রাজ্যসভার সাংসদ সুখেন্দুশেখর রায়। নেতাদের ফাঁসাতে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাকে ব্যবহার করা হচ্ছে বলে অভিযোগও করেন তিনি।

Advertisement

শুক্রবার দুপুরে দিল্লি থেকে সাংবাদিক বৈঠক করেন সুখেন্দুশেখর রায় (Sukhendu Sekhar Roy)। সেখানে  তিনি বলেন, “কেন্দ্র সরকার নিজেদের ইচ্ছে মতো ব্যবহার করছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাকে। তাদের নির্দেশেই সিবিআই ও ইডি তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে বেআইনি পদক্ষেপ করছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তৃণমূল সরকারের কন্ঠরোধ করার চেষ্টা করা হচ্ছে।” এরপর তিনি আরও বলেন, “ওরা বলেছিল ২০০-র বেশি পদ নিয়ে রাজ্যে ক্ষমতায় আসবে। কিন্তু তা হয়নি। মানুষ ওদের পক্ষে রায় দেয়নি। আর মানুষের রায় মাথা পেতে নিতে পারছে না বিজেপি।”

[আরও পড়ুন: Post Poll Violence: রাজ্যের গঠিত SIT-এর শীর্ষে অবসরপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি মঞ্জুলা চেল্লুর]

সুখেন্দুশেখর রায়ের অভিযোগ, পরাজয় মানতে পারছে না বলেই নতুন করে ষড়যন্ত্র করছে কেন্দ্র। তাঁর কথায়,  “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) সারাদেশের বিরোধীদের সংঘবদ্ধ করেছেন, ওরা সেটাও মেনে নিতে পারছে না। তাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আর তৃণমূলকে আটকানোর চেষ্টা করছে।” ত্রিপুরায় অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গাড়ি ভাঙচুর, অন্যান্য নেতাদের আক্রমণ প্রসঙ্গেও কেন্দ্রকে আক্রমণ করেন  সুখেন্দুশেখর। 

ভোট পরবর্তী হিংসার তদন্ত প্রসঙ্গেও মোদি সরকারকে আক্রমণ করলেন রাজ্যসভার সাংসদ। তিনি বলেন, “মিথ্যে অভিযোগ করছে, অকারণে লোকের বাড়ি বাড়ি ঘুরছে।” তাঁর দাবি, ভোটের আগে রাজ্যে বিচ্ছিন্নভাবে অশান্তির ঘটনা ঘটলেও পরবর্তীতে তা হয়নি। বিজেপি মিথ্যে অভিযোগ করছে। উল্লেখ্য, এই প্রথম নয়, আগেও বহুবার রাজ্যের তরফে অভিযোগ করা হয়েছে, ইডি-সিবিআইয়ের মতো সংস্থাগুলিকে ব্যক্তি স্বার্থ চরিতার্থ করতে ব্যবহার করছে কেন্দ্র। একের পর এক ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে তৃণমূলের প্রথম শ্রেণির নেতাদের।

[আরও পড়ুন: Visva Bharati: হাই কোর্টের নির্দেশে বিশ্বভারতীতে উঠল পড়ুয়াদের অনশন, বাড়ল ক্যাম্পাসের সুরক্ষা]

Advertisement
Next