Advertisement

মায়ের উপর রাগ, তিন মাসের শিশুকন্যাকে জীবন্ত পুঁতে দিল কাকিমা!

08:42 PM Apr 18, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাঞ্জাবে (Punjab) ঘটে গেল মর্মান্তিক ঘটনা। মায়ের উপর রাগে তিন মাসের শিশুকে জীবন্ত পুঁতে দিল তারই কাকিমা। তবে প্রথমে স্বীকার না করলেও পরবর্তীতে পুলিশি জেরার মুখে নিজের দোষ মেনে নেন অভিযুক্ত মহিলা।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, ঘটনাটি ঘটেছে পাঞ্জাবের ফাজিলকা জেলার আমির খাস পুলিশ স্টেশনের অন্তর্গত একটি এলাকায়। জানা গিয়েছে, আমনদীপ কৌর নামে ওই শিশুটির মা তাঁর তিনমাসের কন্যাসন্তানকে প্রতিবেশীর বাড়িতে রেখে ব্যাংকে গিয়েছিলেন। কিন্তু ফিরে এসে প্রতিবেশীর বাড়িতে মেয়েকে আর দেখতে পাননি। এরপর চারিদিকে তন্নতন্ন করে খুঁজেও মেয়ের হদিশ পায়নি গোটা পরিবার। এদিকে, পরদিন সকালেই ওই মহিলার জা অর্থাৎ দেওরের স্ত্রী তথা ঘটনায় মূল অভিযুক্ত সুখপ্রীত কৌর জানায়, বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে শিশুটির পা বেরিয়ে আছে। এরপরই সবাই সেখানে গিয়ে শিশুটির মৃতদেহ উদ্ধার করে।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন: অক্সিজেনের অভাবে মারা যাচ্ছেন করোনা রোগীরা! অব্যাহতি চাইলেন বিহারের হাসপাতালের সুপারিটেন্ডেন্ট]

এরপরই সুখপ্রীতের ওপর সন্দেহ হয় প্রত্যেকের। কারণ আগে যখন সবাই ওই জায়গায় খোঁজাখুঁজি করছিলেন, তখন সেখানে কিছু ছিল না। এরপরই পুলিশে জা-এর নামে অভিযোগ জানান আমনদীপ। সেই অভিযোগের ভিত্তিতেই পুলিশ আটক করে সুখপ্রীতকে। প্রথমে অভিযোগ অস্বীকার করলেও, পরবর্তীতে জেরায় সত্যিটা মেনে নেয় সুখপ্রীত। জানায়, কয়েকদিন আগেই পারিবারিক অশান্তি হয়েছিল আমনদীপের সঙ্গে। আর সেকারণেই এই কাণ্ড ঘটিয়েছে সে। কিন্তু কীভাবে প্রতিবেশীর বাড়ি থেকে ওই শিশুটিকে নিয়ে আসল সুখপ্রীত? আমনদীপের অভিযোগ, শিশুটিকে প্রতিবেশীর বাড়ি থেকে নিয়ে এসেই এই কুকীর্তি ঘটিয়েছে সুখপ্রীত। আর নিয়ে আসার পরই জীবন্ত পুঁতে দেয় একরত্তি ওই শিশুটিকে। ইতিমধ্যে ঘটনায় অভিযুক্তের কড়া শাস্তির দাবি করেছে মৃত শিশুটির মা। পুলিশ অভিযুক্ত সুখপ্রীতের নামে ভারতীয় দণ্ডবিধি ৩০২ ধারায় মামলা রুজু করেছে।

[আরও পড়ুন: ফের আতঙ্ক কুম্ভমেলা ঘিরে, করোনা পজিটিভ বহু ‘পুণ্যার্থী’ পালালেন হাসপাতাল থেকে]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next