Advertisement

‘রাজ্য ও কেন্দ্রের সরকারের বিরুদ্ধে বামপন্থী আন্দোলনই বিকল্প’, DYFI সম্মেলনে বার্তা পাঠালেন বুদ্ধদেব

05:59 PM May 14, 2022 |

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: শারীরিক অসুস্থতার জন্য তিনি ঘরবন্দি। মাঠে-ময়দানে নেমে কর্মীদের বার্তা দেওয়ার উপায় আর নেই। তবু বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যর ভাবমূর্তিই এখনও হাতিয়ার সিপিএমের। দলের যুবদের কাছেও অনুপ্রেরণা প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীই। যুবদের উৎসাহ বাড়াতে সিপিএমের সর্বভারতীয় যুব সম্মেলনে অভিনন্দন বার্তা পাঠালেন সেই বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য।

Advertisement

অডিও মাধ্যমে রেকর্ড করা বার্তায় বুদ্ধদেব বলেছেন, রাজ্যে ও কেন্দ্রে জনবিরোধী ও দমন পীড়নের সরকার চলছে। তা প্রতিহত করতে পারে একমাত্র বামপন্থী আন্দোলন। সেই লক্ষে অবিচল থেকে সমস্ত প্রতিকূলতা অগ্রাহ্য করে পশ্চিমবঙ্গের ডিওয়াইএফআই (DYFI) কর্মীরা রাজ্যের সর্বত্র প্রতিদিন আন্দোলন সংগঠিত করছেন। তাঁদের সংগ্রামকে আমার আন্তরিক অভিনন্দন। ডিওয়াইএফআইয়ের এই সম্মেলনে আগত সদস্যবৃন্দকে আমার আন্তরিক শুভেচ্ছা।”  সল্টলেকের ইজেডসিসিতে অনুষ্ঠিত ডিওয়াইএফআইয়ের সম্মেলন মঞ্চে এই বার্তা পড়ে শোনান যুব সংগঠনের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভয় মুখোপাধ্যায়।

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

[আরও পড়ুন: ‘বিপ্লবের ইস্তফা বিজেপির গোষ্ঠীবাজির ফল, ২০২৩-এ ক্ষমতা দখল করবে তৃণমূল’, দাবি কুণালের]

শুক্রবার থেকে সিপিএমের যুব সংগঠনের সর্বভারতীয় সম্মেলন শুরু হয়েছে সল্টলেকে। দীর্ঘদিন ধরে শারীরিক অসুস্থতার কারণে ঘরবন্দি রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু বঙ্গ সিপিএমে এখনও তিনি মিথ। সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক হওয়ার পর পাম অ্যাভিনিউয়ের বাড়িতে গিয়ে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যর সঙ্গে দেখা করে এসেছিলেন মহম্মদ সেলিম (MD Selim)। অসুস্থ শরীর নিয়ে এখন আর মাঠে-ময়দানে গিয়ে বার্তা দিতে পারেন না প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী। মঞ্চে দেখা যায় না সাদা ধবধবে ধুতি-পাঞ্জাবি পরা সেই মানুষটিকে যিনি এখনও সিপিএম (CPIM) কর্মী-সমর্থকদের অক্সিজেন। এখনও সিপিএম ও তার শাখা সংগঠনের সম্মেলন-সমাবেশে তাঁর উপস্থিতি থাকে। বাড়িতে থেকেও তিনি কোনও বার্তা দিলে, সেই বার্তা ছড়িয়ে পড়ে।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: ত্রিপুরার রাজনীতিতে শোরগোল, হঠাৎ ইস্তফা মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব দেবের]

যুব সম্মেলনের মঞ্চে বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য (Buddhadeb Bhattacharya) তথা যুব সংগঠনের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা সদস্যের এই বার্তা রাজ্য তো বটেই সারা দেশে বাম যুব কর্মীদের মনোবল বাড়াবে বলেই মনে করা হচ্ছে।

Advertisement
Next