Advertisement

পূর্ব ভারতে SSKM-এ প্রথম ‘3D Endoscopy’র সাহায্যে অস্ত্রোপচার, নজির গড়লেন চিকিৎসকরা

11:33 AM Jul 26, 2021 |
Advertisement
Advertisement

অভিরূপ দাস: আরও সহজ হল কান-নাক-গলার অস্ত্রোপচার। এবার কানের সরু গলি চিকিৎসক দেখতে পাচ্ছেন আরও স্পষ্টভাবে। পূর্ব ভারতে প্রথম ‘3D Endoscopy’-র সাহায্যে অস্ত্রোপচার হল এসএসকেএম হাসপাতালে (SSKM)। থ্রিডি মনিটরের স্ক্রিনে দেখা যাচ্ছে রোগীর কানের অভ্যন্তরীণ জায়গা। থ্রিডি গগলস পরে চিকিৎসকরা। হাসপাতালের অপারেশন থিয়েটার যেন মাল্টিপ্লেক্সের থ্রিডি থিয়েটার।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

অতি সম্প্রতি ত্রিমাত্রিক প্রযুক্তিতে কানের স্টেপিডোটমি অস্ত্রোপচার করলেন এসএসকেএম হাসপাতালের ইনস্টিটিউট অব অটোরাইনোল্যারিঙ্গোলজি এবং হেড নেক সার্জারির শল্য চিকিৎসক ডা. অরিন্দম দাস। প্রথম এই অস্ত্রোপচারের মাধ্যমেই পূর্ব ভারতে পা রাখল থ্রি ডি এন্ডোস্কোপি (3D endoscopy) সিস্টেম। শরীরের ক্ষুদ্রতম হাড় স্টেপিস থাকে কানের অভ্যন্তরে। সবংয়ের বাসিন্দার সেই হাড়ই স্থবির হয়ে গিয়েছিল। শুনতে পাচ্ছিলেন না। অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে সূক্ষ্ম ওই হাড় প্রতিস্থাপন করা হয়। চিকিৎসক অরিন্দম দাস জানিয়েছেন, রোগীর কানে ঢুকে যাচ্ছে নল। সেখানে লাগানো ক্যামেরা। থ্রিডি এন্ডোস্কোপি প্রক্রিয়ায় একটার জায়গায় সেখানে দুটো ক্যামেরা। থ্রি ডি মনিটরে ত্রিমাত্রিক ছবি ভেসে ওঠে। সার্জনদের পরতে হয় থ্রি ডি গগলস। যে ছবি ভেসে ওঠে তা আগের তুলনায় অনেক স্পষ্ট। ছবি ত্রিমাত্রিক হওয়ার তা অত্যন্ত নিখুঁতও। ফলে অস্ত্রোপচার করতে অনেক সুবিধা হয় চিকিৎসকের।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পড়ুন: Earthquake: উত্তর-পূর্বাঞ্চলে ভূমিকম্প, কেঁপে উঠল দার্জিলিং, সিকিম, আতঙ্কিত বাসিন্দারা]

থ্রিডি এন্ডোস্কোপি দ্বিতীয়বার ব্যবহার হল শনিবার। বছর চল্লিশের এক মহিলার কানের পর্দা সারিয়ে তোলার জন্য। সে অস্ত্রোপচারের নাম টিমপ্যানোপ্লাস্টি (Tympanoplasty)। কানের পর্দা ফুটো হয়ে গিয়েছিল মহিলার। সংক্রমণ হচ্ছিল ওই জায়গায়। পুঁজ পড়ত। ডা. সায়ন হাজরা জানিয়েছেন, পূর্ব ভারতে প্রথম থ্রিডি এন্ডোস্কোপি ব্যবহার করে সারানো হল কানের পর্দা। নজির গড়ল এসএসকেএম। নতুন এই যন্ত্র কাজ করার পিছনে প্রফেসর ডা. অরুণাভ সেনগুপ্তর ভূমিকা অনস্বীকার্য। তিনি জানিয়েছেন, থ্রিডি যন্ত্র ব্যবহারের ফলে অস্ত্রোপচারের সময়ে এবং পরে সমস্যা, ঝুঁকির আশঙ্কাও অনেক কম। এত দিন এন্ডোস্কোপি যন্ত্রের মাধ্যমে একটি ক্যামেরা নাক-কান-গলার যে অংশে সমস্যা রয়েছে, সেখানে ঢোকানো হত। ক্যামেরায় তোলা ছবি মনিটরের পর্দায় দেখে অস্ত্রোপচার করতেন চিকিৎসকরা। কানে কোনও কিছু ঢুকলে ঠিক কতটা ভিতরে ঢুকেছে তা বুঝতে সামান্য সমস্যা হত। কিন্তু ‘থ্রিডি এন্ডোস্কোপি’ যন্ত্রের মাধ্যমে অস্ত্রোপচার এখন আরও নিখুঁত। হাসপাতাল সূত্রে খবর, নতুন যন্ত্রটির দাম ৬৫ লক্ষ টাকা।

 

[আরও পড়ুন: Corona vaccine: প্রথম ডোজ কোভিশিল্ডের, দ্বিতীয়টি Covaxin! বালুরঘাটের ঘটনায় শোরগোল]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next