কলেজে চাকরির মামলা খারিজ আদালতে, আগামী সপ্তাহ থেকেই অ্যাডমিট পাবেন SET প্রার্থীরা

10:09 PM Dec 14, 2021 |
Advertisement

দীপঙ্কর মণ্ডল: এসএসসির (SSC) নিয়োগ প্রক্রিয়ায় অস্বস্তির মাঝে আদালতে স্বস্তি পেল কলেজ সার্ভিস কমিশন (CSC)। সহকারী অধ্যাপক পদে একটি নিয়োগ প্রক্রিয়া শেষ করে আর একটি প্রক্রিয়া শুরু হয়েছিল। কিন্তু আগের প্রক্রিয়ায় চাকরি চেয়ে মামলা হয় কলকাতা হাই কোর্টে (Calcutta HC)। আন্দোলনেও নামেন কলেজে চাকরিপ্রার্থীরা। যে কারণে নিয়োগ প্রক্রিয়া থমকে যায়। মঙ্গলবার সেই মামলা খারিজ করেছে আদালত। সিএসসি–র মামলাকারিদের দাবি খারিজ করেছেন বিচারপতি মৌসুমী ভট্টাচার্য।

Advertisement

কমিশনের চেয়ারম্যান অধ্যাপক দীপক কর আদালতের রায়কে স্বাগত জানিয়ে বলেন, “সহকারী অধ্যাপক পদে আবেদন করেছেন প্রায় ৩৩ হাজার প্রার্থী। এবার তঁাদের নিয়োগ প্রক্রিয়া দ্রুত শুরু করা হবে।” অন্যদিকে, স্টেট এলিজিবিলিটি টেস্ট (SET)–এর অ্যাডমিট আগামী সপ্তাহ থেকে মিলবে। আগামী ৯ জানুয়ারি রাজ্যজুড়ে এই পরীক্ষা হবে। রেকর্ড সংখ্যক ৮৩ হাজার প্রার্থী এবার সেট–এ বসবেন।

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

[আরও পড়ুন: হাওড়ায় ১২ হাজার কোটির বিনিয়োগ, দেড় লক্ষ কর্মসংস্থানের হদিশ দিল রাজ্য সরকার]

২০১৮ সালে কলেজে সহকারী অধ্যাপক (Associate Professor) চেয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করেছিল সিএসসি। ২২০০ শূন্যপদের জন্য প্রায় ৩৩০০ জনকে ইন্টারভিউতে ডাকা হয়। ২০১২ সালের নিয়মে দু’টি পদের জন্য ডাকা হয়েছিল তিনজনকে। ২০২০ সালে ফের নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ হয়। দু’বছর আগে ভূগোল–সহ কয়েকটি বিষয়ে আবেদন করে চাকরি না পাওয়া প্রার্থীদের একটি অংশ পুরনো প্যানেলে নিয়োগের দাবি করে। কমিশন না মানায় এই দাবিতে আদালতে মামলা হয়। নতুন প্যানেল বাতিলের দাবিও জানান মামলাকারিরা। বিচারপতি এদিন মামলাটি খারিজ করে দেন। আদালত জানায়, একটি প্যানেলের মেয়াদ থাকে সর্বোচ্চ এক বছর। মামলাকারীদের মেয়াদ পেরিয়ে গিয়েছে। সিএসসির চেয়ারম্যান জানিয়েছেন, “আমরা আইন মেনে ২০২০ সালে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছিলাম। মামলার কারণে যা আটকে ছিল। আদালতের রায়ের পর এবার নিয়োগের কাজ শুরু হয়ে যাবে।”

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: নিমেষেই মুশকিল আসান, বিপদে পড়লে অভিযোগ জানাতে আর থানায় যেতে হবে না মহিলাদের]

কলেজ সার্ভিস কমিশন (CSC) প্রতি বছরই সেট নেয়। তবে চলতি বছরে ন্যাক অ্যাক্রিডিটেশনের জন্য পরীক্ষা হয়নি। রেকর্ড সংখ্যক ৮৩ হাজার প্রার্থী এবার সেট–এ বসার আবেদন করেছেন। ৩৩ টি বিষয়ের দু’টি ধাপে হবে পরীক্ষা। কোভিড বিধি মেনে প্রতি বেঞ্চে একজনকেই বসাবে কমিশন। আবেদনের নিরিখে এবার প্রথম প্রার্থীরা নিজেদের মহকুমায় পরীক্ষা দিতে পারবেন। কমিশন সূত্রে খবর, এবার সেট–এর পরীক্ষাকেন্দ্র থাকছে ২০০ টি। সুন্দরবন এবং শিলিগুড়িতে প্রথমবার সেট নেওয়া হবে। বেশ কয়েকটি বিষয়ে বাংলাতেও হবে প্রশ্নপত্র। এবার ডাক বিভাগের মাধ্যমে অ্যাডমিট আসবে না। ওয়েবসাইট থেকে তা ডাইনলোড করতে হবে। আগামী সপ্তাহ থেকে অ্যাডমিট ডাউনলোড করা যাবে।

Advertisement
Next