সুপ্রিম কোর্টে মানিকের মামলায় অনুপস্থিত CBI আইনজীবী! ফের ‘অসন্তুষ্ট’বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়

02:08 PM Nov 23, 2022 |
Advertisement

রাহুল রায়: রাজ্যের শিক্ষাক্ষেত্রে নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় সিবিআইয়ের (CBI) ভূমিকা নিয়ে ফের অসন্তোষ প্রকাশ করলেন কলকাতা হাই কোর্টের বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। এবার বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের মন্তব্যে ইঙ্গিত, সিবিআই নিয়োগ দুর্নীতি মামলাকে যথেষ্ট গুরুত্ব দিচ্ছে না। তিনি সাফ বলে দিচ্ছেন, নিয়োগ দুর্নীতির তদন্তে বর্তমান পরিস্থিতি সন্তোষজনক নয়।

Advertisement

আসলে গত ১৮ নভেম্বর সুপ্রিম কোর্টে রাজ্য প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের প্রাক্তন চেয়ারম্যান মানিক ভট্টাচার্যের (Manik Bhattacharya) মামলার শুনানি ছিল। কিন্তু আশ্চর্যজনকভাবে সেদিন শীর্ষ আদালতে উপস্থিতই ছিলেন না কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আইনজীবী। শীর্ষ আদালতের নির্দেশনামায় সিবিআইয়ের আইনজীবীর অনুপস্থিতির কথা নথিবদ্ধ রয়েছে। বুধবার তা দেখেই অসন্তুষ্ট হন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। সিবিআইয়ের (CBI) গা-ছাড়া মনোভাবে বিরক্ত কলকাতা হাই কোর্টের বিচারপতি।

[আরও পড়ুন: অর্থের বিনিময়ে রাহুলের ভারত জোড়ো যাত্রায় অভিনেতারা, দাবি বিজেপির, পালটা দিল কংগ্রেসও]

সুপ্রিম কোর্টে (Supreme Court) সিবিআইয়ের আইনজীবীর অনুপস্থিতিতে বিস্ময় প্রকাশ করে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় এদিন বলেন, “সুপ্রিম কোর্টে মানিক ভট্টাচার্যর মামলায় অনুপস্থিত সিবিআইয়ের আইনজীবী। এটা খুব সন্তোষজনক পরিস্থিতি নয়।” এরপরই সিবিআইয়ের আইনজীবীর উদ্দেশে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের পরামর্শ, “সিবিআই আধিকারিকদের বলুন এই মামলা খুব গুরত্ব দিয়ে দেখতে।”

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন:কেটে টুকরো টুকরো করবে আফতাব! দু’বছর আগেই পুলিশকে জানান শ্রদ্ধা, প্রকাশ্যে বিস্ফোরক চিঠি]

সার্বিকভাবে নিয়োগ দুর্নীতিতে সিবিআইয়ের ভূমিকায় যে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় সন্তুষ্ট নন, সেটা এর আগেও একাধিকবার স্পষ্ট হয়ে গিয়েছে। একাধিকবার নিয়োগ তদন্তে সিবিআইয়ের ভূমিকা নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন তিনি। নিয়োগ দুর্নীতির তদন্ত নারদ-সারদার মতো হয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কাও প্রকাশ করেছেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়। এমনকী, নিয়োগ দুর্নীতির তদন্তে সিবিআইয়ের যে সিট গঠিত হয়েছিল, সেই সিটে বিরাট রদবদল হয়েছে তাঁর নির্দেশেই। সিটের দায়িত্বে থাকা আধিকারিকদের সরিয়ে নতুন আধিকারিক নিয়োগ করতে হয়েছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাকে। কিন্তু তারপরও কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা শীর্ষ আদালতে যে ভূমিকা নিচ্ছে, তাতে বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায় বেশ বিরক্ত। তাঁর এদিনের মন্তব্যে সেরকম ইঙ্গিতই মিলেছে।

Advertisement
Next