Advertisement

নাড্ডার কনভয়ে হামলা: তিন IPS আধিকারিককে কেন্দ্রীয় ডেপুটেশনের জন্য তলব

05:29 PM Dec 12, 2020 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জেপি নাড্ডার (J P Nadda) কনভয়ে হামলার ঘটনায় কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাত আরও বাড়ল। এবার বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতির নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা বাংলার তিন আইপিএস আধিকারিককে কেন্দ্রীয় ডেপুটেশনে কাজ করাতে চায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক। তাই পুলিশের তিন শীর্ষ কর্তাকে তলব করেছে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রক। কেন্দ্র এই পদক্ষেপ করতে পারে না বলে রাজ্যও পালটা চিঠি দিয়েছে বলে খবর। উল্লেখ্য, হামলার ঘটনায় শনিবার আরও আট জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ফলে মোট ধৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ১৫ জন। এদিন ধৃত আটজনকে আদালতে তোলা হলে বিচারক অভিযুক্তদের ছ’দিনের পুলিশ হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেন।

Advertisement

সংবাদ সংস্থা এএনআই সূত্রের খবর, বাংলার তিন আইপিএস (IPS) অফিসারকে কেন্দ্রীয় ডেপুটেশনে কাজের জন্য ডেকে পাঠিয়েছে অমিত শাহের মন্ত্রক। সূত্রের খবর, এই তিন আধিকারিক হলেন, ভোলানাথ পান্ডে (ডায়মন্ড হারবারের পুলিশ সুপার), রাজীব মিশ্র (দক্ষিণবঙ্গের এডিজি) এবং প্রবীণ ত্রিপাঠী (ডিআইজি, প্রেসিডেন্সি রেঞ্জ)। তিনজনই জেপি নাড্ডার নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন।

[আরও পড়ুন : ‘রাজনৈতিক প্রতিহিংসা’, মুখ্যসচিব-ডিজিকে তলব নিয়ে পালটা কেন্দ্রকে চিঠি কল্যাণের]

বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতির বঙ্গ সফরে হামলার ঘটনায় কেন্দ্র বনাম রাজ্যের সংঘাত ক্রমশ বাড়ছে। জেপি নাড্ডার সফরে নিরাপত্তায় গাফিলতির অভিযোগ তুলে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের কাছে অভিযোগ জানিয়েছিলেন দিলীপ ঘোষ। এরপর ডায়মণ্ডহারবার যাওয়ার পথে নাড্ডার কনভয়ে হামলা হয়। তারপরই রাজ্যপালের কাছে রিপোর্ট চায় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক (Ministry of Home Affairs)। এমনকী, রাজ্যের মুখ্যসচিব ও ডিজিকে তলব করে। কিন্তু ১৪ ডিসেম্বরের সেই বৈঠকে তাঁরা কেউ যাবেন না বলে সাফ জানিয়ে দেয় রাজ্য। এবার সরাসরি তিন আইপিএস আধিকারিককে কেন্দ্রীয় ডেপুটেশেনর জন্য তলব করা হল।

[আরও পড়ুন : অমিত শাহের আগেই সংঘপ্রধান মোহন ভাগবতের কলকাতা সফর, রয়েছে একাধিক কর্মসূচি]

সূত্রের খবর, রাজ্যের তরফে ফের কেন্দ্রকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। তাতে সাফ জানানো হয়েছে, কেন্দ্র এভাবে কোনও রাজনৈতিক নেতার নিরাপত্তায় গাফিলতির কারণ দেখিয়ে আইপিএস আধিকারিকদের সেন্ট্রাল ডেপুটেশনে পাঠাতে পারে না। সব মিলিয়ে নাড্ডার সফর ঘিরে কেন্দ্র বনাম রাজ্যের সংঘাত আরও তীব্র হচ্ছে বলেই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। 

Advertisement
Next