Advertisement

Madan Mitra: ‘১৫ লাখে এক কাপ’, চা বিক্রি করে মোদিকে খোঁচা মদনের

02:05 PM Aug 01, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চা বিক্রেতা মদন মিত্র (Madan Mitra)! এক কাপ চায়ের দাম ১৫ লক্ষ টাকা। কালো পাঞ্জাবী, কালো টুপি পরে অনুগামীদের সঙ্গে নিয়ে ভবানীপুর এলাকায় চা বিক্রি করলেন কামারহাটির তৃণমূল বিধায়ক মদন মিত্র।  কিন্তু হঠাৎ কেন এমন ‘ভোলবদল’ রাজ্যের প্রাক্তন পরিবহণ মন্ত্রীর?

Advertisement

জ্বালানি-সহ একাধিক পণ্যের মূল্যবৃদ্ধির (Price Hike) জেরে নাভিশ্বাস উঠেছে আমজনতার। আর এর জন্য কেন্দ্রকে দায়ী করছে তৃণমূল। সেই মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ করতে গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে (PM Narendra Modi) খোঁচা দিলেন তৃণমূল বিধায়ক। এদিন মদন মিত্রের স্লোগান ছিল, “এক কাপ চায়ের দাম ১৫ লক্ষ টাকা।” তাঁর কথায়, “এমন চা আমেরিকার রাষ্ট্রপতিও খাওয়াতে পারেননি। যা এখন মোদিজি আমাদের খাওয়াচ্ছেন।” কিন্তু এক কাপ চায়ের দাম ১৫ লক্ষ টাকা কেন বললেন তৃণমূল বিধায়ক?

[আরও পড়ুন: Facebook-এ সরাসরি অস্ত্র বিক্রির বিজ্ঞাপন! কলকাতায় গ্রেপ্তার যুবক]

রবিবার সকাল থেকে ভবানীপুরের রাস্তায় দলীয় অনুগামীদের নিয়ে জমায়েত করেছিলেন প্রাক্তন পরিবহণ মন্ত্রী। উদ্দেশ্য, মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদ। তাঁর অনুগামীরা অনেকেই প্রধানমন্ত্রীর মুখের আদলে মুখোশ পরেছিলেন। আর মদন মিত্র বিক্রি করছিলেন চা। যার প্রতি কাপের দাম ১৫ লক্ষ টাকা। কারণ, ২০১৪ সালের লোকসভা ভোটের আগে বিদেশে থাকা কালো টাকা ফিরিয়ে আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন তৎকালীন বিজেপির প্রধানমন্ত্রী পদপ্রার্থী নরেন্দ্র মোদি। বিরোধীদের দাবি, ক্ষমতায় এলে প্রত্যেক দেশবাসীর অ্যাকাউন্টে ১৫ লক্ষ টাকা দেবেন বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মোদি। পাশাপাশি, নিজের চা-বিক্রেতা ভাবমূর্তিকে হাতিয়ার করেছিলেন তিনি। এদিন সেই বিষয়গুলি তুলে ধরে খোঁচা দিলেন মদন মিত্র। 

Advertising
Advertising

 

[আরও পড়ুন: ‘অন্য দলে যোগ দেব না’, ফেসবুকে লিখেও লাইনটি মুছলেন Babul, তুঙ্গে দলবদলের জল্পনা]

শুধুমাত্র মূল্যবৃদ্ধির প্রতিবাদই নয়, বাবুল সুপ্রিয় থেকে তৃণমূলের মিশন ত্রিপুরা (Tripura) ইস্যু নিয়েও মুখ খুলেছেন কামারহাটির বিধায়ক। মদন মিত্রের কথায়, “ত্রিপুরায় ক্ষমতায় আসবে তৃণমূল। ওখানে খেলা হবে দিবস নয়, পালিত হবে বিজয় দিবস।”  এদিকে বাবুল সুপ্রিয়কে পরোক্ষে তৃণমূলে যোগ দেওয়ার আহ্বান জানিয়ে রাখলেন তিনি। বাবুলের (Babul Supriyo) উদ্দেশে বললেন, “এত তাড়াতাড়ি আলবিদা কেন? এত সুন্দর আকাশ আছে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্ব আছে। এক মাঠে খেলবেন না, অন্য মাঠে খেলবেন। আমিও তো মাঝে প্র্যাকটিসে ছিলাম না। তাতে কী?”

Advertisement
Next