Advertisement

এপ্রিলে মমতার হয়ে প্রচারে আসছেন শরদ পওয়ার! আপত্তি জানিয়ে NCP-কে চিঠি কংগ্রেসের

02:00 PM Mar 17, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এবার রাজ্যে তৃণমূলের হয়ে প্রচারে আসছেন প্রবীণ রাজনীতিবিদ তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শরদ পওয়ার (Sharad Pawar)। সূত্রের খবর, এপ্রিলের শুরুতেই এরাজ্যের শাসকদলের হয়ে প্রচার করবেন এনসিপি সুপ্রিমো। বাংলায় একাধিক জনসভায় দেখা যেতে পারে তাঁকে। তৃণমূলনেত্রীর সঙ্গে একমঞ্চেও থাকতে পারেন পওয়ার।

Advertisement

পওয়ারের দল মহারাষ্ট্রে কংগ্রেসের (Congress) জোটসঙ্গী হলেও এরাজ্যে বিজেপিকে রুখতে তৃণমূলেই আস্থা রেখেছেন বর্ষীয়ান রাজনীতিবিদ। মমতার পাশে থেকে বাংলার নির্বাচনে বিজেপিকে হারাতে মরিয়া তিনি। পূর্বঘোষিত সিদ্ধান্ত মতো সংযুক্ত মোর্চার সঙ্গী হিসেবেই বাংলার ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল এনসিপি (NCP)। কিন্তু শেষপর্যন্ত পওয়ার এরাজ্যে না লড়ে মমতাকে সমর্থনের সিদ্ধান্ত নেন। একইভাবে তেজস্বী যাদবের আরজেডিও বিহারে কংগ্রেসের জোটসঙ্গী হওয়া সত্ত্বেও এরাজ্যে সমর্থন করছে তৃণমূলকে। শোনা যাচ্ছে, পওয়ারের মতো লালুপত্র তেজস্বীও (Tejaswi Yadav) এরাজ্যের ভোটের আগে তৃণমূলের সমর্থনে প্রচারে আসতে পারেন। তবে, তাঁর প্রচার সূচি এখনও স্পষ্ট নয়।

[আরও পড়ুন: নীল নবান্নে নয়, ক্ষমতায় এলে লাল রাইটার্সে রাজ্যের সচিবালয় ফেরাবে বিজেপি]

এদিকে, কেন্দ্রীয় স্তরের দুই জোটসঙ্গীর এই মমতা-প্রীতিতে অসন্তুষ্ট এরাজ্যের কংগ্রেস (Congress) নেতৃত্ব। ইতিমধ্যেই তৃণমূলের হয়ে প্রচারে না আসতে অনুরোধ করে শরদ পাওয়ার ও তেজস্বী যাদবকে চিঠি লিখেছেন কংগ্রেস সাংসদ প্রদীপ ভট্টাচার্য (Pradip Bhattacharya)। মঙ্গলবার ই-মেইল মারফত দুই নেতাকে এই বার্তা পাঠান প্রদীপ। এদিন কলকাতা প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক সাংবাদিক বৈঠকে রাজ্যসভার ওই কংগ্রেস সাংসদ বলেন, ‘‘আমি শরদ পওয়ার ও তেজস্বী যাদবকে ই-মেল পাঠিয়ে তৃণমূলের হয়ে প্রচারে না নামার জন্য অনুরোধ করেছি।’’ তিনি বলেন, ‘‘পশ্চিমবঙ্গে যে বিজেপির বিরুদ্ধে কেবলমাত্র তৃণমূল লড়াই করছে, এমনটা নয়। বিজেপির বিরুদ্ধে জাতীয় কংগ্রেস ও বামপন্থী বন্ধুরাও প্রতিনিয়ত দেশের বিভিন্ন প্রান্তে লড়াই করে যাচ্ছে। তাই শুধুমাত্র বাংলার ভোটে আরজেডি বা এনসিপি তৃণমূলের জন্য ভোট প্রচার করবেন, এটা ঠিক নয়। কারণ, এখানকার বাস্তব পরিস্থিতি ভিন্ন। জাতীয়স্তরে যে ভাবে আমরা একসঙ্গে লড়াই করি, এ রাজ্যে এমনটা হলে তা ভুল বার্তা বহন করবে।’’

Advertisement
Next