Advertisement

মহাকাশের বর্জ্য নিয়ে গবেষণা, প্রাথমিক তথ্যতালাশ করতে নতুন স্যাটেলাইট পাঠাল চিন

09:56 PM Oct 24, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মহাকাশে গবেষণায় প্রযুক্তির ভূমিকা তো অনস্বীকার্য। কিন্তু মহাকাশের বর্জ্য থেকেও কি নতুন প্রযুক্তির সন্ধান মিলতে পারে? এই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে এবার মহাশূন্যে স্যাটেলাইট পাঠাল চিন (China)। রবিবারই পাঠানো হয়েছে শিজিয়ান-২১ (Shijian-21)। যা সেখানে পৌঁছে মূলত মহাকাশের বর্জ্য সংক্রান্ত তথ্য সরবরাহ করবে বলে জানা গিয়েছে। চিনের সরকারি সংবাদমাধ্যম জিনহুয়ার (Xinhua) তরফে এই খবর জানানো হয়েছে।

Advertisement

স্থানীয় সময় রাত ৯.২৭ অর্থাৎ ভারতীয় সময়ে রবিবার সকাল। চিনের সিচুয়ান প্রদেশের জিচ্যাং স্যাটেলাইট লঞ্চ সেন্টার থেকে উৎক্ষেপণ করা হয়েছে শিজিয়ান-২১। মার্চ-3B রকেট তাকে নির্দিষ্ট কক্ষপথে পৌঁছেও দিয়েছে। চিনের এরোস্পেস সায়েন্স অ্যান্ড টেকনোলজি কর্পের তরফে সাফল্যের কথা ঘোষণা করা হয়েছে। চিনের মহাকাশ গবেষণায় শিজিয়ান-২১’এর উৎক্ষেপণ অন্যতম বড় সাফল্য বলে মনে করা হচ্ছে।

[আরও পডুন: ১০ কোটি বছর আগে ছিল পৃথিবীর বাসিন্দা, মিলল ডাইনোসরের আমলের কাঁকড়ার জীবাশ্ম!]

কিন্তু শিজিয়ান-২১’এর কাজ মূলত কী? চিনের মহাকাশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সংস্থার খবর অনুযায়ী, ‘স্পেস ডেব্রিস’ (Space Debris) অর্থাৎ মহাকাশ বর্জ্য থেকে কোনওভাবে নতুন প্রযুক্তি তৈরি করা যায় কি না, তার সন্ধান চালাবে চিনের এই স্যাটেলাইটটি। কীভাবে কাজ করবে, সে বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানায়নি চিন। তবে একটি বিষয় স্পষ্ট। মহাকাশের বর্জ্য থেকে কোনও নয়া প্রযুক্তির উদ্ভাবন করা গেলে, তা সামরিক এবং অসামরিক – দুই কাজেই ব্যবহারের পরিকল্পনা আছে চিনের।

[আরও পডুন: বৃহস্পতিতে বিস্ফোরণ! জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা চমকে উঠলেন আলোর ঝলকানি দেখে]

এর আগে চিন পৃথিবীর কক্ষপথ থেকে বর্জ্য সরানোর জন্য স্যাটেলাইট পাঠিয়েছিল। তবে প্রযুক্তির উপর গবেষণার কারণে স্যাটেলাইট ব্যবহার আগে কখনও হয়নি। সম্প্রতি মহাকাশ গবেষণায় বাড়তি নজর দিয়েছে চিন। রাশিয়া, আমেরিকাকে টেক্কা দিতে গিয়ে চাঁদ, মঙ্গলেও যান পাঠাচ্ছে পৃথিবীর অন্যতম শক্তিধর দেশটি। এবার মহাকাশের বর্জ্য নিয়ে তাদের স্যাটেলাইটটি নতুন দিগন্ত খুলে দিতে পারে বলেই মত ওয়াকিবহাল মহলের।

Advertisement
Next