মহামারীর দিন অতীত? বেজিংয়ে খুলল স্কুল, করোনা যুদ্ধে জয়ী সাংহাইও

04:01 PM Jun 25, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মহামারীর দিন অতীত! ছন্দে ফিরছে চিনের (China) দুই বড় শহর-সাংহাই এবং বেজিং। শনিবার সকালে সাংহাই (Shanghai) প্রশাসনের তরফে জানানো হয়েছে, করোনার বিরুদ্ধে কার্যত জয় পেয়েছে চিনের এই শহর। আবার সোমবার থেকে খুলছে বেজিংয়ের (Bejing) স্কুলও। সবমিলিয়ে অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে চিনের করোনা পরিস্থিতি।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

গত দু’মাস ধরে করোনা আতঙ্কে কাঁপছিল সাংহাই এবং বেজিং। সম্পূর্ণ লকডাউন (Lockdown) জারি করা হয়েছিল সাংহাইতে। বেজিংয়ের একাংশেও লকডাউন জারি করা হয়েছিল। হাতেনাতে মিলল তার সুফল। গত দু’মাসের মধ্যে এই প্রথমবার কোভিড-১৯ (COVID-19) সংক্রমণ শূন্য হল সাংহাইতে। এর পরই প্রশাসনের ঘোষণা. করোনা যুদ্ধে কার্যত জিতে গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: স্বপ্নপূরণ! বাংলাদেশে পদ্মা সেতুর উদ্বোধন প্রধানমন্ত্রী হাসিনার, রবিবার থেকেই চলবে যানবাহন]

এদিনই বেজিংয়ের স্কুল খোলারও ঘোষণা করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, সোমবার থেকে সমস্ত প্রাথমিক এবং উচ্চ বিদ্যালয়গুলি খুলছে। আর নার্সারি স্কুল খুলছে আগামী ৪ জুলাই। যদিও ২ জুন থেকে উঁচু ক্লাসের ছাত্রছাত্রীদের স্কুলে আসার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

চলতি বছরের মার্চ থেকে ফের একবার করোনা সংক্রমণে জেরবার হয় চিনের একাংশের বাসিন্দারা। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল স্কুল-কলেজ। ফের অনলাইন পঠনপাঠনে জোর দেওয়া হয়। লকডাউন জারি হয়েছিল সাংহাইতে। কড়া বিধিনিষেধের ফল মিলেছে হাতেগরম। সংক্রমণের গ্রাফ নিম্নমুখী হওয়ায় ১ জুন উঠে যায় লকডাউন। এবার করোনা যুদ্ধে জয়ের ঘোষণা করল প্রশাসন।

[আরও পড়ুন: সামান্য ধাক্কাতেই ধসে গেল নির্মীয়মাণ কলেজের দেওয়াল! যোগীরাজ্যে বড়সড় দুর্নীতির অভিযোগ]

বলে রাখা ভাল, বছর দুয়েক আগে করোনা মহামারীর তাণ্ডবে যখন গোটা বিশ্ব ত্রস্ত ছিল, তখন সংক্রমণ দ্রুত নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়েছিল চিন। কিন্তু এবার পরিস্থিতি যেন ক্রমে হাতের বাইরে চলে যাচ্ছে। একের পর এক শহরে দ্রুত বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। বিশেষ করে সাংহাই শহরের পরিস্থিতি শোচনীয় হয়ে দাঁড়িয়েছিল। সংক্রমিতদের আইসোলেশনে রাখার জন্য পর্যাপ্ত জায়গার অভাব দেখা দিয়েছিল। 

Advertisement
Next