Advertisement

‘ড্রাগন’বধে নয়া ফাঁদ, অস্ট্রেলিয়ার সেনাঘাঁটিতে পা রাখবে ভারতীয় ফৌজ!

06:32 PM Jun 04, 2020 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিনের পর দিন আগ্রাসী হয়ে উঠছে ‘ড্রাগন’। ভারত মহাসাগরে ক্রমেই বৃদ্ধি পাচ্ছে চিনা নৌসেনার আনাগোনা। যারপরনাই রীতিমতো উদ্বেগ ছড়িয়েছে ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার প্রতিরক্ষা মহলে। তাই রণনীতির দাবি মেনে এবার এক নতুন চুক্তিতে আবদ্ধ হয়েছে দুই দেশ। এর ফলে প্রয়োজনে একে অপরের সেনা ঘাঁটি ব্যবহার করবে ভারত ও অস্ট্রেলিয়া৷

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘তাণ্ডবের ছবি দেখে মর্মাহত’, আমফান দুর্গত এলাকায় সাহায্যের বার্তা ফরাসি প্রেসিডেন্টের]

বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের ভার্চুয়াল সামিটে ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার মধ্যে স্বাক্ষরিত হল ঐতিহাসিক Mutual Logistics Support Agreement (MLSA) চুক্তি৷ ভারতের বিদেশমন্ত্রক জানিয়েছে, এই চুক্তির ফলে ভারত মহাসাগর ও দক্ষিণ প্রশান্ত মহাসাগরে দু’দেশের মধ্যে সামরিক শক্তি বিনিময়ের পথ প্রশস্ত হয়ে গেল৷ তবে সব চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হচ্ছে, চুক্তির অনুসারী অস্ট্রেলিয়ার সেনাঘাঁটি ব্যবহার করে উপরোক্ত দুই মহাসাগরেই অবাধে পাড়ি দিতে পারবে ভারতীয় নৌবহর। এর ফলে চিনা নৌবাহিনীকে এক চক্রব্যূহর মধ্যে ঘিরে ফেলা যাবে। তারপর হাজার হাত পা ছুঁড়লেও মুক্তি পাবে না ‘ড্রাগন’।

উল্লেখ্য, বেশ কয়েকদিন আগে থেকেই এই ভারচুয়াল সামিট নিয়ে দুই রাষ্ট্রপ্রধানই বেশ উচ্ছ্বসিত ছিলেন। করোনা আবহে আন্তর্জাতিক মহলে কূটনীতির ভাষাই বদলে গিয়েছে। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য এখন আন্তর্জালেই দৌত সম্পন্ন হচ্ছে। তাই মরিসনের উদ্দেশে কয়েকদিন আগে টুইট করে প্রধানমন্ত্রী মোদি বলেছিলেন, ‘৪ জুন মুখোমুখি হওয়ার অপেক্ষায় মুখিয়ে আছি।’ এর আগে সশরীরে দুজনের সাক্ষাৎ হয়েছিল। কিন্তু মহামারী পরিস্থিতিতে ভিডিও কনফারেন্স প্রথম করলেন দুজনে। এদিনের বৈঠকে দু’দেশের অর্থনীতি, বাণিজ্য এবং প্রতিরক্ষা-সহ বেশি কিছু বিষয় উঠে এসেছে আলোচনায়।

[আরও পড়ুন: ভারতকে আমন্ত্রণ ট্রাম্পের, জি-৭ নিয়ে সপ্তমে চিনের মেজাজ]

The post ‘ড্রাগন’ বধে নয়া ফাঁদ, অস্ট্রেলিয়ার সেনাঘাঁটিতে পা রাখবে ভারতীয় ফৌজ! appeared first on Sangbad Pratidin.

Advertisement
Next