Advertisement

কিমের ‘শক্তিশেল’, হলিউডের কায়দায় এবার ট্রেন থেকে মিসাইল উৎক্ষেপণ উত্তর কোরিয়ার

08:50 AM Sep 18, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আবহে নাজেহাল হলেও অস্ত্র তৈরি থামাচ্ছে না উত্তর কোরিয়া (North Korea)। আন্তর্জাতিক পরমাণু শক্তি সংস্থা (IAEA) জানিয়েছে, ফের পরমাণু বোমার জ্বালানি তৈরির কাজে উদ্যোগী হয়েছে পিয়ংইয়ং। শুধু তাই নয়, সম্প্রতি এক ভিডিওয় দেখা গিয়েছে একবারে হলিউডের কায়দায় ট্রেন থেকে এক জোড়া ব্যালিস্টিক মিসাইল ছুড়েছে কিমের ফৌজ।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ফের রকেট হামলা কাবুলে! বিস্ফোরণে কাঁপল আফগানিস্তানের বিদ্যুৎকেন্দ্র]

উত্তর কোরিয়ার সরকারি সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, গত বুধবার ট্রেন থেকে দু’টি স্বল্পপাল্লার মিসাইল ছোঁড়া হয়েছে। ৮০০ কিলোমিটার দূরে সমুদ্রে নিখুঁত নিশানায় গিয়ে পড়েছে সে দু’টি। সরকারি মিডিয়ায় দেখা গিয়েছে, অরণ্য ঘেরা এলাকায় ট্রেন থেকে কমলা শিখা ছড়িয়ে দু’টি ক্ষেপণাস্ত্র ছিটকে ওঠে। যার অর্থ, উত্তর কোরিয়া এ বার পাহাড়-জঙ্গলে যে কোনও এলাকায় ক্ষেপণাস্ত্র নিয়ে গিয়ে সেখান খেকে তা ছুড়তে পারবে। এই ভ্রাম্যমাণ ব্যবস্থা তাদের নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে অনেক দৃঢ় করে তুলবে বলে দাবি দেশটির।

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

কয়েক ,এস আগেই মার্কিন বায়ুসেনার শীর্ষ কর্তা জেনারেল গ্লেন ভনহেরেক সেনেটের আর্মড সার্ভিসেস কমিটিকে জানিয়েছিলেন, ২০১৮ সালে মিসাইল পরীক্ষা না করার প্রতিশ্রুতি রক্ষা করা হবে না বলে সাফ ইঙ্গিত দিয়েছে উত্তর কোরিয়া। অদূর ভবিষ্যতে ইন্টারকন্টিনেন্টাল ব্যালিস্টিক মিসাইলের পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ করতে চলেছে কিমের সেনা। ‘NBC News’ সূত্রে খবর, উত্তর কোরিয়ার মিসাইল উৎক্ষেপণ কেন্দ্রে আচমকা কার্যকলাপ বেড়েছে বলে মার্কিন সেনার কাছে খবর রয়েছে। এছাড়া, স্যাটেলাইট চিত্রে দেখা যাচ্ছে উত্তর কোরিয়ার আনবিক কেন্দ্রেও গতিবিধি বেড়েছে। সেখানে পারমাণবিক বোমা তৈরির জন্য ইউরেনিয়ম সমৃদ্ধ করা হয়। যদিও সেনেটে মার্কিন সেনকর্তা আত্মবিশ্বের সুরে জানিয়েছেন, যে কোনও হামলা রুখে দিতে ও যোগ্য জবাব দিতে সক্ষম মার্কিন ফৌজ।

উল্লেখ্য, চলতি বছরের শুরু দিকে কমিউনিস্ট দেশটির রাজধানী পিয়ংইয়ংয়ে সামরিক কুচকাওয়াজে দৈত্যকার ক্ষেপণাস্ত্রের প্রদর্শন করে উত্তর কোরিয়া। বিশ্লেষকদের মতে, দৈত্যাকার হাতিয়ারটি হচ্ছে ‘সাবমেরিন লঞ্চড ব্যালিস্টিক মিসাইল’ (SCBM) বা ডুবোজাহাজ থেকে উৎক্ষেপণ করার মতো ক্ষেপণাস্ত্র। এটি আণবিক অস্ত্রবহনে সক্ষম বলেও দাবি।অস্ত্র বিশেষজ্ঞদের মতে, ওই অত্যাধুনিক মিসাইলগুলির নাম ‘Pukguksong-5’। সাবমেরিনে বয়ে নিয়ে যাওয়ার মতো অত বড় ক্ষেপণাস্ত্র সত্যিই অবাক করার মতো। এর আগে ২০১৭ সালে আন্তঃমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্রের পরীক্ষামূলক উৎক্ষেপণ করে উত্তর কোরিয়া। মূলত আমেরিকাকে ভয় দেখিয়ে কূটনৈতিক মঞ্চে সুবিধা আদায় করতেই শক্তিপ্রদর্শন করছেন কিম বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

[আরও পড়ুন:Taliban Terror: আফগানিস্তানে নবগঠিত তালিবান সরকারকে স্বীকৃতি দিতে তোড়জোড় শুরু দিল্লির]

Advertisement
Next