সংসদের সূচনায় যুবরাজ চার্লস, তবে কি সিংহাসন ছাড়ছেন রানি এলিজাবেথ?

01:23 PM May 12, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দীর্ঘ সত্তর বছর ধরে ব্রিটেনের রানির দায়িত্ব সামলাচ্ছেন তিনি। কিন্তু চলতি বছরের পার্লামেন্টের অধিবেশনের সূচনায় অনুপস্থিত রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ (Queen Elizabeth II)। রাজ প্রতিনিধি হিসাবে অধিবেশন শুরু করার ভাষণ দিলেন সিংহাসনের উত্তরাধিকারী যুবরাজ চার্লস। বাকিংহাম প্যালেস সূত্রে জানান হয়েছে, চলাফেরা করতে অসুবিধা থাকার কারণে এই অনুষ্ঠানটি এড়িয়ে গিয়েছেন রানি এলিজাবেথ। তবে ঠিক কী সমস্যা হয়েছে রানির, তা নিয়ে কিছু বলেনি রাজপরিবার। এই ঘটনার ফলেই এবার জল্পনা শুরু হয়েছে, তবে কি শারীরিক অসুস্থতার কারণে এবার সিংহাসনের দায়িত্ব ছেড়ে দেবেন এলিজাবেথ? বিশেষজ্ঞদের মতে, এই ঘটনা রাজপরিবারের ইতিহাসে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

Advertisement

ব্রিটেনের সংবিধান অনুসারে, পার্লামেন্টের অধিবেশন তখনই হতে পারে যখন রাজা বা রানি তাঁদের ডাকবেন। চিরাচরিত প্রথা যেন মেনে চলা হয়, সেই কারণেই প্রতিনিধি পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে রাজপরিবারের তরফ থেকে। অধিবেশনে দু’জন রাজপ্রতিনিধিকে থাকতে হয়। সেই কথা মাথায় রেখে চার্লসের (Prince Charles) সঙ্গে এসেছিলেন তাঁর পুত্র উইলিয়ামও। তবে অধিবেশনে তিনি কোনও ভাষণ দেননি। সাংসদদের উদ্দেশ্যে চার্লস বলেন, “মাননীয়া রানির সরকার চায়, অর্থনীতির বিকাশ হোক। শক্তপোক্ত অর্থনীতি গড়ে তোলার মাধ্যমে দেশের মানুষের জীবনযাত্রার খরচ কমানোই রানির মূল উদ্দেশ্য।”

[আরও পড়ুন: একেই বলে কর্মফল! প্রেমিকাকে খুন করে দেহ লোপাটের করতে গিয়ে হৃদরোগে মৃত্যু বৃদ্ধের]

সংসদের অধিবেশন (British Parliament) শুরু করা রানির অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ সাংবিধানিক দায়িত্ব। বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, খুব হালকাভাবে হলেও রাজপরিবার ইঙ্গিত দিয়েছে, ক্ষমতা হস্তান্তর হতে পারে। ব্রিটেনের এক সাংসদ বলেছেন, “আমরা বরাবর রানিকে এই ধরনের অনুষ্ঠানে দেখতে পেয়েছি। আমার বিশ্বাস তিনি নিজেও উপস্থিত থাকতে চেয়েছিলেন পার্লামেন্টে। কিন্তু তিনি আসতে না পারায় যুবরাজ ভাষণ দিলেন, কিন্তু উল্লেখযোগ্য ভাবে তিনি আমার সরকার না বলে রানির সরকার বলে ভাষণ দিয়েছেন।”

Advertising
Advertising

বেশ কিছুদিন ধরেই অসুস্থ রয়েছেন রানি এলিজাবেথ। গতবছর সংসদের অধিবেশনে দেখা গিয়েছিল, পুত্র চার্লসের হাত ধরে এসে বসেছেন তাঁর নির্দিষ্ট চেয়ারে। বেশ কয়েকটি বিদেশ সফরেও তাঁর প্রতিনিধি হিসাবে গিয়েছেন রাজপুত্র উইলিয়াম। তবে জানা গিয়েছে, এই সপ্তাহেই ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সঙ্গে একটি ভারচুয়াল বৈঠক করবেন রানি এলিজাবেথ। অনেকেই ভেবেছিলেন, হয়তো ফাঁকা থাকবে রানির আসন। কিন্তু যুবারজকে পাঠিয়ে রাজপরিবারের তরফ থেকে বার্তা দেওয়া হল, সিংহাসনের যোগ্য উত্তরাধিকারী তৈরি রয়েছে।  

[আরও পড়ুন: উত্তর কোরিয়ায় ‘প্রথম’ করোনা সংক্রমণ, জরুরি অবস্থা ঘোষণা একনায়ক কিমের

Advertisement
Next