Advertisement

তৃণমূল বিধায়ক Raj Chakraborty’র বৈঠক চলাকালীন হামলার অভিযোগ, আহত ৬

08:28 PM Aug 29, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিধায়ক রাজ চক্রবর্তীর (Raj Chakraborty) বৈঠক চলাকালীন হামলার অভিযোগ উঠল বারাকপুরে। শোনা গিয়েছে, ঘটনায় ছ’জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে ১ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। অল্পের জন্য নাকি রক্ষা পেয়েছেন রাজ চক্রবর্তী। হামলা শুরু হতেই তাঁকে ঘিরে ফেলেছিলেন নিরাপত্তারক্ষীরা। সূত্রের খবর মানলে, রাজ চক্রবর্তীর বৈঠকে হামলার অভিযোগে ১৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে টিটাগর থানার পুলিশ। 

Advertisement

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিবার বারাকপুর ১ নম্বর স্টেশনের কাছে অবস্থিত হনুমান মন্দিরের সামনে বৈঠক করছিলেন রাজ। তাঁর সঙ্গে ছিলেন তৃণমূলের (TMC) কর্মী সমর্থকরা। সেই সময়ই আচমকা হামলা চালায় প্রায় জনা তিরিশেক দুষ্কৃতী। সঙ্গে সঙ্গে রাজকে ঘিরে ফেলেন তাঁর নিরাপত্তারক্ষীরা। অল্পের জন্যই রক্ষা পান তৃণমূল বিধায়ক (TMC MLA)। তবে ঘটনায় অন্তত ছ’জন তৃণমূল সমর্থক আহত হয়েছেন বলে খবর। আহতদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। ঘটনার তদন্তে নেমে ইতিমধ্যেই নাকি ১৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে টিটাগর থানার পুলিশ। হামলার নেপথ্যে আর কে বা কারা রয়েছে, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: ‘জগদ্ধাত্রী পুজো পর্যন্ত রাজ্যে উপনির্বাচন হবে না’, BJP নেতা তথাগত রায়ের টুইট ঘিরে জোর জল্পনা]

একুশের ভোটের আগে ঘাসফুল শিবিরে যোগ দিয়েছিলেন পরিচালক রাজ। ভোটে লড়াই করে জনপ্রতিনিধি হয়েছেন। বারাকপুরের (Barrackpore) বিধায়ক হওয়ার পর থেকেই এলাকায় নেমে কাজ করছেন রাজ চক্রবর্তী। কখনও স্টেডিয়ামের খোলনলচে পালটে মিনি কোভিড হাসপাতাল তৈরি করেছেন, কখনও কোনও বারাকপুরবাসীর বাড়ির সামনে জমা জলের সমস্যার কথা শুনে সরাসরি তাঁর সঙ্গে কথা বলতে পৌঁছে গিয়েছেন।

পরিবারের সঙ্গে যেটুকু সময় কাটান, সেটুকু বাদে বাকি সময়টা নিজের কেন্দ্রের কাজেই কাটান রাজ। সেই কারণেই রবিবার বৈঠক করছিলেন বিধায়ক। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, মন্দির কমিটি কার দখলে থাকবে তা নিয়ে সমস্যার সূত্রপাত হয়েছিল। তবে আচমকা যে বৈঠকে দুষ্কৃতীরা হামলা চালাবে তার আঁচ পাননি কেউই।

[আরও পড়ুন: মাদুরে বোনা রামায়ণের গল্প! অসাধারণ হস্তশিল্পে জাতীয় পুরস্কার পাচ্ছেন সবংয়ের ২ নারী]

Advertisement
Next