সন্দেশখালি নিয়ে অবশেষে নীরবতা ভাঙলেন নুসরত, কী বললেন সাংসদ?

07:33 PM Feb 12, 2024 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সন্দেশখালিতে গত দেড়মাস ধরে ধিকিধিকি করে জ্বলছিল আগুন। শেষ পাঁচ-ছদিনে কার্যত ‘জনরোষের অগ্ন্যুৎপাত’ ঘটেছে উত্তর ২৪ পরগনার এই দ্বীপে। তার পরেও খোঁজ ছিল না স্থানীয় সাংসদ নুসরত জাহানের। অবশেষে সোমবার নীরবতা ভাঙলেন অভিনেত্রী-সাংসদ। তপ্ত সন্দেশখালি প্রসঙ্গে কী বললেন নুসরত?

Advertisement

এক সংবাদমাধ্যমকে তৃণমূল সাংসদ জানালেন, প্রশাসনের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন তিনি। সাংসদের কথায়, “এটা বিভেদের সময় নয়, একসঙ্গে লড়াই করা দরকার। সন্দেশখালির মানুষের জন্য সবরকম সদার্থক ভূমিকা পালন করছে রাজ্য সরকার। প্রশাসনের সঙ্গে থাকুন।” এর পরই নুসরতের সতর্কবার্তা, “কেউ প্ররোচনায় পা দেবেন না। কেউ প্ররোচনা দেবেন না। এই ইস্যু নিয়ে রাজনীতি করবেন না। আগুনে ঘি ঢালবেন না।”

[আরও পড়ুন: বাংলাকে বঞ্চনার প্রতিবাদ! ১০০ দিনের বকেয়া চেয়ে মোদিকে চিঠি রাহুলের]

শাহজাহান শেখের বাড়িতে ইডি তল্লাশিকে কেন্দ্র করে অশান্তির সূত্রপাত। দীর্ঘদিন ধরে সংবাদ শিরোনামে সন্দেশখালি। গত তিনদিন ধরে ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন এলাকার বাসিন্দারা। লাঠি, ঝাঁটা হাতে রাস্তায় নেমেছেন শাহজাহান ও তাঁর সাগরেদদের গ্রেপ্তারির দাবিতে। একের পর এক পোলট্রি ফার্মে আগুন ধরিয়ে দেন উত্তেজিত জনতা। পরিস্থিতি এতটাই উত্তপ্ত হয়ে পড়ে যে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়। বন্ধ করে দেওয়া হয় ইন্টারনেট পরিষেবা। সন্দেশখালিতে এত অশান্তি সত্ত্বেও দেখা মেলেনি এলাকার সাংসদ নুসরত জাহানকে।

এলাকা পরিদর্শনে যাওয়া তো দূর-অস্ত। সন্দেশখালি প্রসঙ্গে একটি কথাও বলছিলেন তিনি। সম্প্রতি বিমানবন্দরে তাঁকে এ বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তাও এড়িয়ে গিয়েছিলেন তিনি। তবে সোশাল মিডিয়ায় রীতিমতো অ্যাকটিভ তিনি। ভালোবাসার সপ্তাহ জুড়ে বিভিন্ন রকমের ছবি, ভিডিও পোস্ট করছেন নিজের ইনস্টাগ্রামে। অবশেষে সোমবার সন্দেশখালি নিয়ে মুখ খুললেন নুসরত। 

[আরও পড়ুন: ‘ধর্ষক’কে গ্রেপ্তার করছে না পুলিশ! জলের ট্যাঙ্কে উঠে প্রতিবাদ দলিত নির্যাতিতার]

Advertisement
Next