Advertisement

অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসেই পুরুলিয়ার তৈরি জমিতেও খারাপ ফল বিজেপির, প্রকাশ্যে রিপোর্ট

09:01 AM Jun 08, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসের কারণেই জঙ্গলমহল পুরুলিয়ায় (Purulia) ৯–০ ফলাফল হল না বিজেপির (BJP)। গত পঞ্চায়েত ও লোকসভা ভোটের ফলাফলকে সামনে রেখে এই জেলায় বিধানসভা নির্বাচনে ঘাসফুল সাফ করার টার্গেট ছিল গেরুয়া শিবিরের। কিন্তু বাড়তি আত্মবিশ্বাসই অন্তরায় হয়ে দাঁড়িয়ছে। মঙ্গলবার বঙ্গ বিজেপির সাংগঠনিক বৈঠকের ঠিক আগে পুরুলিয়ায় ভোটের ফলাফল নিয়ে এই রিপোর্ট জমা পড়ল। গত রবিবার জেলায় সাংগঠনিক বৈঠকে আলোচনার পর দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh) রিপোর্ট নিয়ে যান।

Advertisement

মঙ্গলবার বঙ্গ বিজেপির সাংগঠনিক বৈঠক। ভোটের ফলাফলের পর এই স্তরের বৈঠক প্রথম। অন্যান্য জেলার সঙ্গে পুরুলিয়া নিয়েও আলোচনা হবে। কাটাছেঁড়া হবে দলের ফলাফল নিয়ে। এদিকে, ৯-০ করতে না পারার ক্ষত ঢাকতে এখন থেকেই পুরুলিয়া জেলা বিজেপি পুর নির্বাচনকে মাথায় রেখে ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে ঝাঁপিয়ে পড়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। বিজেপির জেলা সভাপতি বিদ্যাসাগর চক্রবর্তী বলেন, “বিধানসভা ভোটের ফলাফল নিয়ে রাজ্য সভাপতির সঙ্গে আলোচনা হয়েছে। আমরা এখন থেকেই জেলার পুরসভা নির্বাচনে ঝাঁপিয়ে পড়ব।”

[আরও পড়ুন: চুঁচুড়ার পর এবার আসানসোল, ফের দলীয় কর্মীদের বিক্ষোভের মুখে দিলীপ ঘোষ]

পুরুলিয়া জেলা বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে, করোনার কথা মাথায় রেখে সেবামূলক কাজ নিয়ে পুরসভার ওয়ার্ডগুলিতে গিয়ে মানুষের মন জয় করার টার্গেট নেওয়া হয়েছে। কারণ, এই মুহূর্তে পুর নির্বাচন সংক্রান্ত কথাবার্তা, প্রচার সাধারণ মানুষ ভালভাবে নেবেন না। তাই অতিমারীর এই কঠিন সময়ে সেবা দিয়েই জেলার তিন পুর শহরের মানুষের মন জিততে চায় বিজেপি। এই জেলায় পুর শহরে বিজেপি ভাল ফল করলেও তিন পুরসভার বহু বিজেপি নেতা–কর্মী কার্যত বসে গিয়েছেন। তাই তাঁদের জনসেবার কাজে যুক্ত করে আবার আগের মত পুরোদমে মাঠে নামাতে উদ্যোগী জেলা বিজেপি।

[আরও পড়ুন: কড়া বিধিনিষেধের সুফল! রাজ্যের দৈনিক সংক্রমণ নামল ছ’হাজারের নিচে]

এই জেলায় গেরুয়া শিবিরের আশানুরূপ ফলাফল না হওয়ার পিছনে অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাস ছাড়াও রিপোর্টে উঠে এসেছে আরও এক প্রসঙ্গ। জেলার ন’টি বিধানসভাতেই আদিবাসীরা বিজেপিকে একেবারেই ভোট দেয়নি। তাছাড়া এই জেলায় কুড়মিদের একটা বড় অংশ বিজেপি থেকে মুখ ফিরিয়েছে। অথচ গত পঞ্চায়েত ও লোকসভা নির্বাচনে এই জেলায় এই দুই জনজাতির অধিকাংশ ভোটই গিয়েছিল গেরুয়া শিবিরের ঝুলিতে। তবে জেলা জুড়েই বাউরি জনজাতির সমর্থন ব্যাপকভাবেই পেয়েছে বিজেপি। জেলা বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার দলের পর্যালোচনা বৈঠকে পুরুলিয়ার এই বিষয়গুলিই উঠে আসবে।

Advertisement
Next