বিজয়ীর বিড়ম্বনা! ট্রোলের শিকার ‘সারেগামাপা’জয়ী অর্কদীপ মিশ্র, মনখারাপ শিল্পীর

09:49 PM Apr 19, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অনেকদিন ধরে অনেক পরিশ্রম। কষ্ট করে ‘কেষ্ট’ মিলেছে বটে। বিজয়ী হয়েছেন। বড় মঞ্চে জনপ্রিয়তা লাভ করেছেন। পুরস্কার, স্বীকৃতির ঝুলি পূরণ হয়েছে। বলা হচ্ছে, টেলিদুনিয়ার জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো (Reality Show) ‘সারেগামাপা’-র এই সিজনের বিজয়ী সংগীতশিল্পী অর্কদীপ মিশ্র (Arkadeep Mishra)। এত প্রাপ্তি, তবু মন ভাল নেই। কেন? কেন কেরিয়ারের একেবারে গোড়ায় এমন এক অভাবনীয় সাফল্যের উদযাপন আনন্দহীন? কেন বারবার ছায়া ফেলছে বিষাদ? কারণ, জয়ী হওয়ার পরমুহূর্ত থেকেই তাঁর যোগ্যতা নিয়ে নেটদুনিয়ায় সমালোচনার ঝড়। কী যোগ্যতায় বিজয়ীর মুকুট উঠল তাঁর মাথায়? উঠেছে এই প্রশ্ন। সেটাই অর্কদীপের মনের আনন্দ কেড়ে নিয়েছে। তবে এই অবস্থায় বিচারকরা সবাই তাঁর পাশে।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

জি বাংলায় (Zee Bangla) সম্প্রচারিত সংগীতের রিয়্যালিটি শো ‘সারেগামাপা’র জনপ্রিয়তা গোড়া থেকেই তুঙ্গে। তাই এই মঞ্চের বিজয়ী, রানার আপ – সকলেই বাড়তি গুরুত্ব, প্রশংসা পেয়ে থাকেন। তাঁদের কেরিয়ার মসৃণভাবে এগিয়ে চলে। এই রিয়্যালিটি শো’র বেশ কয়েকটি পর্ব হয়ে গিয়েছে ইতিমধ্যে। শেষতমটি শেষ হয়েছে রবিবার। অন্তিম পর্বে ওঠা পাঁচ প্রতিযোগীকে হারিয়ে বিচারকদের হাত থেকে জয়ীর ট্রফি তুলে নিয়েছেন অর্কদীপ মিশ্র। পিছনে ফেলেছেন জ্যোতি, নীহারিকা, অনুষ্কা, রক্তিম, বিদীপ্তাকে। যদিও গ্র্যান্ড ফিনালেতে প্রত্যেকেই দারুণ পারফর্ম করে বিচারকদের প্রশংসা কুড়িয়েছেন। তবে অর্কদীপের গান মন ভরিয়ে দেওয়ায় তাঁকেই বিজয়ী ঘোষণা করেছেন। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী ছিলেন অনুষ্কা।

[আরও পডুন: OMG! সুন্দর হওয়ার মোহে ডাক্তারের কাছে গিয়ে এ কী হল অভিনেত্রীর!]

অনেকেই ভেবেছিলেন, ‘সারেগামাপা’য় সেরার সেরা শিরোপা উঠবে অনুষ্কার মাথায়। কিন্তু তা না হওয়ায় হতাশ তাঁরা। তবে তার জন্য যেভাবে সকলে বিজয়ী অর্কদীপের যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিলেন, তা যথেষ্ট অসংবেদনশীল বলেই মত শিল্পীমহলের একটা বড় অংশের। কেউ লিখছেন, এটা পক্ষপাতমূলক সিদ্ধান্ত। কারও বক্তব্য, তাঁর গানের এমন কিছু নেই যে প্রতিযোগিতায় সেরা নির্বাচিত হবেন। এসব দেখেশুনে স্বভাবতই মুহ্যমান অর্কদীপ। জয়ী হয়েও জয়ের স্বাদ নিতে পারছেন না। বারবার বলছেন, প্রতিযোগীরা সকলেই অত্যন্ত যোগ্য। তিনি নিজেই ভাবেননি যে সেরা হবেন। এতে তাঁর ত্রুটি কোথায়? এমন সরল প্রশ্নও করে ফেলছেন ভগ্ন হৃদয় অর্কদীপ।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

[আরও পডুন: করোনাই কারণ! সাময়িকভাবে বন্ধ থাকছে শহরের একাধিক সিনেমা হল]

তবে এই অবস্থায় বিচারকরা তাঁরই পাশে। যে টিমের সদস্য তিনি, সেই ইমন চক্রবর্তীই (Iman Chakraborty) রুখে দাঁড়িয়েছেন এ ধরনের ট্রোলের বিরুদ্ধে। বাকি বিচারক – রাঘব বন্দ্যোপাধ্যায়, জয় সরকার, শ্রীকান্ত আচার্য, সবাই অর্কদীপের পাশে রয়েছেন। এ ধরনের সংস্কৃতির তীব্র বিরোধিতা করছেন তাঁরা।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next