Advertisement

‘ষাঁড়, মোষ এবং মহিলা, উত্তরপ্রদেশে সবাই সুরক্ষিত’, বিতর্ক উসকে মন্তব্য যোগী আদিত্যনাথের

06:38 PM Sep 14, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘আব্বাজান’ মন্তব্য নিয়ে রীতিমতো বিতর্কে জড়িয়েছেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ (Yogi Adityanath)। গোটা দেশ থেকে তাঁর মন্তব্যের বিরোধিতা করা হচ্ছে। এর মধ্যেই ফের এমন এক মন্তব্য করে বসলেন উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) মুখ্যমন্ত্রী, যা নিয়েও আগামিদিনে বিস্তর বিতর্ক দেখা দিতে পারে। পূর্ববর্তী সরকারের সঙ্গে বর্তমান সরকারের পার্থক্য বোঝাতে গিয়ে আদিত্যনাথ মহিলাদের সঙ্গে একই আসনে বসিয়ে দিলেন ষাঁড় এবং মোষকে।

Advertisement

সোমবার লখনউয়ের রাজ্য বিজেপির হেডকোয়ার্টারে দলীয় কর্মীদের সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে তিনি আগের সমাজবাদী সরকারের প্রবল সমালোচনা করেন। পাশাপাশি বলেন, তাঁর ক্ষমতায় আসার আগে রাজ্যের মহিলা, মোষ কিংবা ষাঁড় কেউই সুরক্ষিত থাকতেন না। আদিত্যনাথ বলেন, “এর আগে যেখানেই আমাদের কর্মীরা যেত, মহিলারা জিজ্ঞাসা করতেন, আমরা কি নিরাপদে কখনও থাকতে পারব? আমাদের মা-বোনেরা সবসময়ই নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতেন। এমনকী কোনও গরুর গাড়ি যদি পশ্চিম উত্তরপ্রদেশে যেত, তাহলে ষাঁড় কিংবা মোষেরাও নিরাপদে থাকত না।”

[আরও পড়ুন: পেট্রল কেনার টাকা নেই! মোষের পিঠে চেপেই মনোনয়ন জমা দিলেন বিহারের পঞ্চায়েত ভোটের প্রার্থী]

এরপরই আদিত্যনাথের সংযোজন, “এর আগে পশ্চিম উত্তরপ্রদেশেই এই ধরনের ঘটনাগুলি দেখা যেত। তবে পূর্ব উত্তরপ্রদেশে এগুলি হত না। কিন্তু এখনও কোথাও এই ধরনের কোনও ঘটনা ঘটে না। আজ মোষ, ষাঁড় কিংবা মহিলা-কাউকেই জোর করে কেউ তুলে নিয়ে যেতে পারে না। পার্থক্যটা বুঝতে পারছেন? তখন বলা হত, যেখান থেকে রাস্তায় গর্ত শুরু হচ্ছে, সেখান থেকেই উত্তরপ্রদেশের সীমানা শুরু। আগে সবসময় উত্তরপ্রদেশ অন্ধকারে ডুবে ছিল। রাতে প্রত্যেকেই রাস্তায় বেরতে ভয় পেতেন। কিন্তু এখন নয়।”

 

এদিকে, আব্বাজান ইস্যুতে যোগী আদিত্যনাথকে বিঁধলেন বলিউড অভিনেতা নাসিরুদ্দিন শাহ। একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, “ওই মানুষটা (উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী) যেমন তেমনই বলেছেন। এই ধরনের মন্তব্যে কোনও প্রতিক্রিয়া দেওয়া যায় না। কিন্তু আসল ঘটনা হল ‘আব্বজান’ মন্তব্যটি ওই ধরনেরই উসকানিমূলক মন্তব্য, যা আদিত্যনাথ সবসময়ই বলে থাকেন।”

[আরও পড়ুন: মানস ভুঁইঞার ছেড়ে যাওয়া রাজ্যসভার আসনে প্রার্থী সুস্মিতা দেব, ঘোষণা তৃণমূলের]

Advertisement
Next