১০-এ শূন্য, রাম রহিমের ডেরায় নিশ্চিহ্ন হয়ে গেল বিজেপি!

05:20 PM Nov 28, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হরিয়ানার স্থানীয় নির্বাচনে বিরাট ধাক্কা বিজেপির (BJP)। গুরমিত রাম রহিমের ডেরা পঞ্চকুলায় জেলা পরিষদের নির্বাচনে ১০ আসনের মধ্যে একটিও জিততে পারল না গেরুয়া শিবির। অধিকাংশ আসন জিতল কংগ্রেস (Congress) সমর্থিত নির্দলরা। সার্বিকভাবে গোটা হরিয়ানাতেই জেলা পরিষদের নির্বাচনে ধাক্কা খেয়েছে গেরুয়া শিবির।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

বিতর্কিত ধর্মগুরু গুরমিত রাম রহিমের (Ram Rahim) ডেরা এই পঞ্চকুলায়। হরিয়ানার পঞ্চায়েত নির্বাচন যখন চলছিল তখন প্যারোলে মুক্তিও দেওয়া হয়েছিল রাম রহিমকে। সেখানে নিজের ডেরায় বসে বহু সৎসঙ্গ শিবির করেছেন তিনি। যাতে নিয়মিত বিজেপি নেতাদের উপস্থিতিও নজরে পড়েছিল। বিরোধীদের অভিযোগ ছিল, ভোটের জন্যই রাম রহিমকে প্যারোলে ছেড়েছে হরিয়ানা (Haryana) সরকার। কিন্তু তাতেও কোনও লাভ হল না বিজেপির।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: ১০০ দিনের প্রকল্পে দুর্নীতি মামলায় কেন্দ্র-রাজ্যের হলফনামা চাইল হাই কোর্ট]

ফলাফল বলছে, পঞ্চকুলার ১০টি আসনের মধ্যে একটিতেও পদ্ম ফোটেনি। অধিকাংশ আসনই জিতেছে নির্দলরা। আসলে কংগ্রেস হরিয়ানার পঞ্চায়েত নির্বাচনে দলীয় প্রতীকে লড়াই করেনি। তবে কংগ্রেস কর্মীদের অনেকেই নির্দল হিসাবে লড়াই করেন। এই ধরনের নির্দলরা এই নির্বাচনে ভাল ফল করেছে। শুধু পঞ্চকুলা নয়, গোটা হরিয়ানাতেই পঞ্চায়েত নির্বাচনে সার্বিকভাবে খারাপ ফল করেছে বিজেপি। তুলনায় কোথাও কোথাও ভাল ফল করেছে লোক দল এবং আম আদমি পার্টি। গুরুগ্রামে ১০ আসনের মধ্যে বিজেপি জিতেছে মাত্র ৪টি। ৩টি আসন পেয়েছে আপ (AAP)। দুটি আসন গিয়েছে লোকদলের (INLD) দখলে। শীর্ষা এবং আম্বালাতেও ভাল ফল করেছে আপ এবং লোকদল। ভাল ফল করেছে কংগ্রেস সমর্থিত নির্দলরাও।

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

[আরও পড়ুন: ৬ মাস আগে বাপের বাড়ি গিয়ে আর ফেরেননি বধূ, স্ত্রীকে ফিরে পেতে শ্বশুরবাড়ির সামনে ধরনায় স্বামী]

বিজেপির এই হারের পিছনে অনেকেই কৃষক অসন্তোষে দায়ী করছে। হরিয়ানার একটা বড় অংশের কৃষকরা এখনও সরকারের ভূমিকায় অসন্তুষ্ট। গ্রামাঞ্চলের এই নির্বাচনে সম্ভবত তারই প্রভাব পড়েছে। বিজেপি নেতারাও মানছেন সেকথা। যদিও তাদের সাফাই, এই ভোটগুলিতে অনেক ক্ষেত্রে স্থানীয় জাতপাতের সমীকরণ কাজ করেছে।

Advertisement
Next