Advertisement

COVID-19: উৎসবের মরশুমেও অনেকটা নিয়ন্ত্রণে করোনা, ২০৩ দিনে সর্বনিম্ন দেশের অ্যাকটিভ কেস

09:49 AM Oct 06, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সেপ্টেম্বর-অক্টোবরেই দেশে করোনার তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন বিশেষজ্ঞরা। তবে উৎসবের মরশুমে এখনও পর্যন্ত অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে দেশের করোনা গ্রাফ। গতকালের থেকে বুধবারের রিপোর্টে আক্রান্তের হার আড়াই শতাংশের খানিকটা বেশি হলেও স্বস্তি দিয়ে কমছে সক্রিয় রোগীর সংখ্যাও।

Advertisement

এদিন স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের (Ministry of Health and Family Welfare) দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১৮ হাজার ৮৩৩ জন করোনা (Coronavirus) আক্রান্ত হয়েছেন। দেশের অন্যান্য রাজ্যে মারণ ভাইরাস অনেকখানি নিয়ন্ত্রণে এলেও এখনও অবশ্য চিন্তায় রাখছে দক্ষিণের রাজ্য কেরল। এদিকে দেশে একদিনে কোভিড-১৯-এ প্রাণ হারিয়েছেন ২৭৮ জন। দেশে এখনও পর্যন্ত করোনার বলি ৪ লক্ষ ৪৯ হাজার ৫৩৮ জন।

[আরও পড়ুন: ‘লখিমপুর কাণ্ডে গাড়ির মালিককে গ্রেপ্তার করা উচিত’, ‘কংগ্রেসের সুর’ বরুণ গান্ধীর গলায়]

সংক্রমণ বাড়লেও গত ২৪ ঘণ্টায় স্বস্তি দিয়েছে করোনার অ্যাকটিভ কেসে। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের রিপোর্ট বলছে, বর্তমানে দেশে করোনায় চিকিৎসাধীন রোগীর সংখ্যা ২ লক্ষ ৪৬ হাজার ৬৮৭ জন। যা গত ২০৯ দিনে সর্বনিম্ন। অর্থাৎ গণেশ চতুর্থী কিংবা বিশ্বকর্মা পুজোর মধ্যেও কড়া কোভিডবিধি জারি থাকায় নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব হয়েছে সংখ্যাটা। পরিসংখ্যান অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত দেশে ৩ কোটি ৩১ লক্ষ ৭৫ হাজার ৬৫৬ জন করোনা থেকে মুক্ত হয়েছেন। যার মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনামুক্ত হয়েছেন ২৮ হাজার ৭১৮ জন।

কোভিড রুখতে টিকাকরণকেই প্রধান অস্ত্র হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এখনও পর্যন্ত দেশে মোট ৯২ কোটি ১৭ লক্ষেরও বেশি মানুষ করোনার টিকা পেয়েছেন। এর মধ্যে গতকালই টিকা পেয়েছেন প্রায় ৬০ লক্ষ নাগরিক। একইসঙ্গে কোভিড রোগী চিহ্নিত করতে চলছে টেস্টিংও। রিপোর্ট অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ১৪ লক্ষ ৯ হাজার ৮২৫ জনের।

[আরও পড়ুন: যোনিতে আঙুল ঢুকিয়ে পরীক্ষা হয়নি ধর্ষিতা বায়ুসেনা অফিসারের! দাবি এয়ার চিফ মার্শালের]

Advertisement
Next