Advertisement

পুলিশ আসার আগেই নামানো হয় আখড়া পরিষদ প্রধানের দেহ! অভিযোগ ঘিরে ঘনাচ্ছে রহস্য

03:39 PM Sep 23, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ক্রমেই রহস্য দানা বাঁধছে অখিল ভারতীয় আখড়া পরিষদ (Akhil Bharatiya Akhada Parishad) প্রধান মোহন্ত নরেন্দ্র গিরি মহারাজের (Narendra Giri) মৃত্যুকে ঘিরে। বর্ষীয়ান ধর্মগুরুর সুইসাইড নোটে উল্লেখ থাকা তাঁর শিষ্যদের ইতিমধ্যেই গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এবার জানা গেল আরেক চাঞ্চল্যকর তথ্য। পুলিশ আসার আগেই নাকি নরেন্দ্র গিরির ঝুলন্ত মৃতদেহ নামিয়ে নিয়েছিলেন তাঁর শিষ্যরা।

Advertisement

এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদনে একটি ভিডিওর উল্লেখ করা হয়েছে। সেই ভিডিওয় দেখা গিয়েছে, পুলিশ ঘটনাস্থলে হওয়ার সময় দেখা যায়, সিলিং ফ্যানে বাঁধা যে নাইলনের দড়ি গলায় বেঁধে আত্মহত্যা করেছিলেন সেটিকে তিন টুকরো করে কেটেশিষ্যরা, যাতে দেহটি নামিয়ে এনেছেন। আর এখানেই উঠেছে প্রশ্ন। কেন পুলিশ আসা পর্যন্ত অপেক্ষা না করে আগেভাগে নামিয়ে আনা হল দেহটি?

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

[আরও পড়ুন: বিমানে বসেও কাজে মগ্ন প্রধানমন্ত্রী, ‘প্রচার কৌশল’, ছবি দেখে নেটিজেনদের কটাক্ষ]

গত সোমবার এলাহাবাদে নরেন্দ্র গিরির মৃতদেহ উদ্ধার হয় আশ্রমে তাঁর ঘরের ভিতর থেকে। ১৮ সদস্যের তদন্তকারী কমিটি গঠন করেছে যোগী সরকার। তবে বুধবারই তদন্তভার সিবিআইকে দিয়ে দেওয়ার দাবি জানানো হয়েছে সরকারের তরফে। উল্লেখ্য, নরেন্দ্র গিরি তাঁর সুইসাইড নোটে মৃত্যুর জন্য তিনজনকে দায়ী করেছেন। তিনজনই নরেন্দ্র গিরির শিষ্য। ওই তিন অভিযুক্ত আনন্দ গিরি, আদ্য তিওয়ারি ও সন্দীপ তিওয়ারিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

সোমবার থেকেই কোনও খোঁজ মিলছিল না নরেন্দ্র মহারাজের। তাঁর ঘর ভিতর থেকে বন্ধ ছিল। বারবার ডাকাডাকির পরেও কোনও সাড়াশব্দ না মেলায় সন্দেহ দানা বাঁধে। খবর দেওয়া হয় পুলিশে। খবর পাওয়ামাত্রই পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছয়। পুলিশ প্রথমে ঘরের দরজা ধাক্কা দেয়। তবে কোনও সাড়াশব্দ পাওয়া যায়নি তাঁর। দরজা ভেঙে ভিতরে ঢোকে পুলিশ। অখিল ভারতীয় আখড়া পরিষদের প্রধান মোহন্ত নরেন্দ্র গিরি মহারাজকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পাওয়া যায়। অবাক হয়ে যান প্রায় সকলেই। দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায় পুলিশ। সেই সময়ই তাঁর ঘর থেকে সুইসাইড নোট উদ্ধার করা হয়।

[আরও পড়ুন: TMC in Tripura: ত্রিপুরায় অভিষেকের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলায় স্থগিতাদেশ, স্বস্তিতে তৃণমূল]

Advertisement
Next