Advertisement

কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবিতে ২ কোটি সই সংগ্রহ কংগ্রেসের! রাষ্ট্রপতির দ্বারস্থ হচ্ছেন রাহুল

02:36 PM Dec 23, 2020 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজধানী দিল্লিতে কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবিতে হাজার হাজার কৃষকরা যে আন্দোলন করছেন, তার সঙ্গে সরাসরি কংগ্রেসের (Congress) কোনও যোগ নেই। এটা যেমন ঠিক, তেমনি এটাও ঠিক যে, এই বিক্ষোভের ফলে সরাসরি রাজনৈতিক সুবিধা পাচ্ছে কংগ্রেসই। দলের ভগ্ন দশায় এই কৃষক বিক্ষোভ যেন পাঞ্জাব-হরিয়ানার মতো রাজ্যে কংগ্রেসকে নতুন করে উৎসাহ জোগাচ্ছে। এবার তাই এই পড়ে পাওয়া চোদ্দ আনাকে কাজে লাগাতে সরাসরি পথে নামছেন রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi)। কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবিতে দেশজুড়ে প্রায় ২ কোটি সই সংগ্রহ করেছে কংগ্রেস। যা বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপতির কাছে জমা দেবে কংগ্রেসের একটি প্রতিনিধিদল। এই দলের নেতৃত্বে থাকবেন কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি।

Advertisement

কেন্দ্রের বিতর্কিত কৃষি আইনের (Farm Laws) বিরোধিতা প্রথম করেন রাহুল গান্ধীই। তিনিই পাঞ্জাবে গিয়ে ট্র্যাক্টরে চেপে আন্দোলনের সূচনা করেন। তবে, দিল্লিতে যে কৃষি বিক্ষোভ হচ্ছে, সেই বিক্ষোভকে স্বতঃপ্রণোদিত বলেই দাবি করেছে কংগ্রেস। কৃষকদের সংঠনগুলিও জানিয়ে দিয়েছে, তাঁদের বিক্ষোভে কোনও রাজনীতির যোগ নেই। তবে, শুরু থেকেই কংগ্রেস যে এই বিক্ষোভকে (Farmers Protest) নৈতিক সমর্থন দিয়ে আসছে, সেকথা কারও অজানা নয়। বিজেপি নেতারা স্পষ্ট দাবি করেছেন, কৃষকদের এই বিক্ষোভের নেপথ্যে পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ক্যাপ্টেন অমরিন্দর সিং এবং কংগ্রেসের প্রত্যক্ষ মদত আছে। এতদিন আইন বাতিলের দাবিতে সোশ্যাল মিডিয়ায় টুকটাক সরব হচ্ছিলেন রাহুল গান্ধী নিজেও। এবার তিনি পথে নামার সিদ্ধান্ত নিলেন।

[আরও পড়ুন: ২৩ লক্ষ লোক পেয়ে গেল, ভারতের নম্বর কবে আসবে? ভ্যাকসিন নিয়ে মোদিকে খোঁচা রাহুলের]

ইতিমধ্যেই আইন বাতিলের দাবিতে দেশজুড়ে সই সংগ্রহ অভিযান চালিয়েছে কংগ্রেস। চমকপ্রদভাবে দলের এই ভগ্ন দশাতেও মাত্র কয়েক দিনে প্রায় ২ কোটি সই তাঁরা সংগ্রহ করতে সক্ষম হয়েছেন বলে কংগ্রেস নেতাদের দাবি। দলের বর্ষীয়ান সাংসদ কে সুরেশ জানিয়েছেন, “আগামিকাল(বৃহস্পতিবার) রাহুল গান্ধীর নেতৃত্ব কংগ্রেস সাংসদরা বিজয় চক থেকে রাষ্ট্রপতি ভবন থেকে মিছিল করে যাবেন। এবং রাষ্ট্রপতির কাছে ২ কোটি সই সম্বলিত একটি পুস্তিকা জমা দেওয়া হবে।” কংগ্রেস সুত্রের দাবি, রাহুল এই আইন প্রত্যাহারে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোভিন্দকে হস্তক্ষেপ করতে অনুরোধ করতে পারেন।

[আরও পড়ুন: হরিয়ানায় খাট্টারকে কালো পতাকা কৃষকদের, বিক্ষোভের জেরে ফিরে গেল মুখ্যমন্ত্রীর কনভয়]

এদিকে রাহুলের পথে নামার খবর প্রকাশ্যে আসতেই, তাঁকে কটাক্ষ করেছেন মধ্যপ্রদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথা বর্ষীয়ান বিজেপি নেতা নরোত্তম মিশ্র। প্রাক্তন কংগ্রেস সভাপতির উদ্দেশে তাঁর খোঁচা, “রাহুল গান্ধী তো জানেনই না আলু মাটির উপরে ফলে না নিচে।” বিজেপি নেতার দাবি, দিল্লির কৃষক বিক্ষোভে উসকানি দিচ্ছে তথাকথিত ‘টুকরে টুকরে গ্যাং’।

Advertisement
Next