উত্তরপ্রদেশে রাম মন্দির তৈরির অর্থ সংগ্রহের নামে প্রতারণা, অভিযুক্ত ৫

04:31 PM Jan 22, 2021 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অযোধ্যায় রাম মন্দির (Ram Temple) তৈরির জন্য দেশজুড়ে অর্থ সংগ্রহে নেমেছেন বিশ্ব হিন্দু পরিষদ ও রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের সদস্যরা। এই কর্মসূচি সফল করার জন্য লাগাতার প্রচার করা হচ্ছে। এর মাঝেই ভুয়ো সংগঠন তৈরি করে মানুষকে ভুল বুঝিয়ে রাম মন্দির তৈরির টাকা তোলার অভিযোগ উঠল পাঁচ ব্যক্তির বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের পিলভিট জেলায়।

Advertisement

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, রাম মন্দির তৈরির অর্থ সংগ্রহের জন্য দেশব্যাপী কর্মসূচি নিয়েছে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ (VHP) ও আরএসএস (RSS)। ন্যূনতম ১০ টাকা থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা জমা পড়ছে এই সংক্রান্ত তহবিলে। এর মাঝেই পিলভিটের (Pilibhit) সানগারহি থানার অন্তর্গত কলা মন্দির এলাকার পাঁচ ব্যক্তি ভুয়ো একটি সংগঠন তৈরি করে নকল রসিদ দিয়ে টাকা তুলছে বলে অভিযোগ পাওয়া যায়। এরপরই পিলভিট জেলার বিশ্ব হিন্দু পরিষদের সভাপতি ওই পাঁচ জন ব্যক্তির নামে সানগারহি পুলিশ স্টেশনে একটি অভিযোগ দায়ের করেন। তার ভিত্তি তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: অতিমারী পরিস্থিতিতে বিজ্ঞাপনে ভুয়ো দাবি করলেই কড়া শাস্তি, জরিমানা কত জানেন?]

বিশ্ব হিন্দু পরিষদের অভিযোগ, কয়েকদিন আগে বিশ্ব হিন্দু পরিষদের একটি প্রতিনিধি দল সানগারহি থানার অন্তর্গত কলা মন্দির এলাকায় রাম মন্দির তৈরির জন্য অর্থ সংগ্রহ করতে যায়। কিন্তু, সেখানে যাওয়ার পর তারা জানতে পারে অন্য একটি দল আগেই ওই এলাকার মানুষদের কাছ থেকে রাম মন্দির তৈরির জন্য চাঁদা নিয়ে গিয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখতেই জানা যায়, বিশ্ব হিন্দু পরিষদ বা আরএসএসের অনুমোদন ছাড়াই ভুয়ো রসিদ তৈরির করে টাকা তুলেছে অভিযুক্তরা। তাই তাদের নামে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

Advertising
Advertising

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});

তাদের অভিযোগের ভিত্তিতে এই ঘটনায় জড়িত পাঁচ ব্যক্তির বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪২০, ৪৬৭, ৪৬৮ ও ৪৭১ ধারায় মামলা দায়ের করেছে সানগারহি থানার পুলিশ। তদন্তও শুরু হয়েছে।

[আরও পড়ুন: গোরখপুরের সোনার দোকান থেকে লুট নগদ-সহ ৩৫ লক্ষ টাকার গয়না, ধৃত ৩ পুলিশকর্মী]

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
Advertisement
Next