Advertisement

স্মৃতি ইরানিকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় অশালীন পোস্ট, জেলে উত্তরপ্রদেশের অধ্যাপক

11:41 AM Jul 22, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেন্দ্রীয় মন্ত্রী স্মৃতি ইরানিকে ( Smriti Irani) নিয়ে অশ্লীল মন্তব্য করার অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হল উত্তরপ্রদেশের ইতিহাসের এক অধ্যাপককে। ফিরোজাবাদের এসআরকে কলেজের ইতিহাস বিভাগের প্রধান ওই অধ্যাপক। তাঁর নাম শাহারিয়ার আলি (Shaharyar Ali)। গত মার্চে স্মৃতি ইরানি সম্পর্কে তাঁর বিরুদ্ধে ফেসবুকে অশ্লীল মন্তব্যের অভিযোগ ওঠে। তার পরই কলেজ কর্তৃপক্ষ অধ্যাপককে সাসপেন্ড করেন। এবার তাঁকে জেলেও যেতে হল।

Advertisement

কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে হেনস্তা এবং সোশ্যাল মিডিয়ায় অশ্লীল মন্তব্য করার অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে ফিরোজাবাদ পুলিশ মামলা দায়ের করে। একের পর এক আদালত আগাম জামিনের আরজি খারিজ করায় নিম্ন আদালতে আত্মসমর্পণ করে আপাতত জেলে ওই অধ্যাপক। প্রথমে এলাহাবাদ হাই কোর্টে আগাম জামিন না পাওয়ায় গ্রেফতারি এড়াতে জুলাইয়ের শুরুতেই সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন শাহারিয়ার। কিন্তু সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court) অধ্যাপকের নিরাপত্তা মঞ্জুর করেনি। এরপর ফিরোজাবাদের অতিরিক্ত দায়রা আদালতে আত্মসমর্পণ করেন সাহারিয়ার। অন্তর্বর্তী জামিনের আবেদন করেন। কিন্তু মঙ্গলবার আদালত সে আবেদন খারিজ করার পর অধ্যাপককে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারিতে রক্ষাকবচ না দিয়ে বিচারপতি জে জে মুনির (J J Munir) জানিয়েছিলেন, এমন কোনও প্রমাণ নেই, যেখান থেকে বলা যায়, অধ্যাপকের অ্যাকাউন্ট হ্যাক হয়েছিল। তাই গ্রেপ্তারি থেকে রক্ষাকবচ দেওয়া সম্ভব নয়।

[আরও পড়ুন: মধ্যাহ্নভোজে কৌশল নির্ধারণ! দিল্লিতে অভিষেকের সঙ্গে বৈঠক TMC সাংসদদের]

প্রসঙ্গত, এর আগে উত্তরপ্রদেশেই মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথকে (Yogi Adityanath) নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্য করায় এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার হতে হয়েছিল। যা নিয়ে বিতর্ক কম হয়নি। যদিও, এক্ষেত্রে এই অধ্যাপকের আচরণকে মূলত সব পক্ষই নিন্দনীয় বলে মনে করছে। একজন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, তাও আবার মহিলা, তাঁর সম্পর্কে এই ধরনের অশালীন পোস্ট কোনওভাবেই সমর্থনযোগ্য নয় বলে মনে করছে বিরোধী শিবিরও। তাছাড়া যেভাবে সোশ্যাল মিডিয়ায় অশালীন আচরণ এবং হেনস্তার প্রবণতা বাড়ছে, তা নিয়ন্ত্রণ করা প্রয়োজন বলে মনে করছেন অনেকে।

Advertisement
Next