‘শুভেন্দুর বাড়িতে এজেন্সি গেলেও মিলবে গুপ্তধন’, বিস্ফোরক অভিযোগ কুণাল ঘোষের

11:42 AM Jul 29, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পার্থ পর্বের শুরু থেকেই দুর্নীতি অস্ত্রে পালটা শুভেন্দু অধিকারীকে (Suvendu Adhikari) বিঁধছে তৃণমূল। রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রীকে মন্ত্রিসভা এবং দল থেকে ছেঁটে ফেলার পর সেই আক্রমণের ঝাঁজ যেন আরও বাড়ল। তৃণমূলের রাজ্য সম্পাদক কুণাল ঘোষ (Kunal Ghosh) এবার আরও জোরাল সুরে শুভেন্দুর গ্রেপ্তারির দাবিতে সরব হলেন। কুণালের দাবি, শুভেন্দুর বাড়িতে এজেন্সি গেলেও ‘গুপ্তধন’ মিলবে।

Advertisement

শুক্রবার পার্থকে অপসারণের পরদিন সকালেই টুইট করে কুণাল দাবি করেছেন, তৃণমূলে থাকাকালীনই শুভেন্দুর বিরুদ্ধে বেশ কিছু দুর্নীতির অভিযোগ উঠছিল। সেকারণেই তাঁকে একাধিক জেলা পর্যবেক্ষকের পদ থেকে সরিয়ে দেন দলের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। কুণালের দাবি, তখন থেকেই অভিষেকের কাছে শুভেন্দুর নামে নানা তথ্য আসা শুরু হয়ে গিয়েছিল। নিজেকে বাঁচাতে দলবদল করেন রাজ্য বিধানসভার বর্তমান বিরোধী দলনেতা।

Advertising
Advertising

[আরও পড়ুন: বন্ধুদের সঙ্গে প্রায়ই নয়াবাদের ফ্ল্যাটে যেতেন অর্পিতা, রাতভর চলত দেদার পার্টি! প্রকাশ্যে নয়া তথ্য]

তৃণমূলের (TMC) রাজ্য সম্পাদক বলেন, কেন্দ্রীয় এজেন্সি যদি শুভেন্দুর বাড়িতে যেত, তাহলেই তারা গুপ্তধন পেত। শুভেন্দু চোর, তোলাবাজ। তৃণমূলে থাকাকালীন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর দুর্নীতির রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছিলেন বলেই অভিষেককে আজ আক্রমণ করেন বিজেপি নেতা। এরপরই সোজা বিরোধী দলনেতার গ্রেপ্তারির দাবিতে সরব হন কুণাল। তাঁর বক্তব্য, “বিজেপি (BJP) চোরকে বাঁচাচ্ছে, নারদা, সারদাতে ওর গ্রেপ্তারি চাই।”

[আরও পড়ুন: কন্যাশ্রী-সহ একাধিক প্রকল্পের প্রশংসায় পঞ্চমুখ নোবেলজয়ী কৈলাস সত্যার্থী, ধন্যবাদ জানালেন মমতা]

বস্তুত, দুর্নীতি অস্ত্রে শুভেন্দু শুরু থেকেই তৃণমূলের টার্গেট আছেন। রাজ্যের শ্মশান থেকে সারদা, রাজ্যের বিরোধী দলনেতা এবং তাঁর পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ বিস্তর। অথচ, শুভেন্দুর বিরুদ্ধে একেবারেই সক্রিয় নয় কোনও কেন্দ্রীয় এজেন্সি। কুণাল ঘোষ তথা তৃণমূল কংগ্রেস সেই অভিযোগেই সরব হচ্ছেন।

Advertisement
Next