SLST নিয়োগ: ‘যন্ত্রণার হাজার দিনে’ মস্তক মুণ্ডন মহিলা চাকরিপ্রার্থীর

12:18 PM Dec 09, 2023 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে টানাপোড়েনের জল গড়িয়েছে আদালতে। তারই মাঝে বার বার মিলেছে আশ্বাস। তবে এখনও মেলেনি চাকরি। কার্যত দিশাহারা চাকরিপ্রার্থীরা। ধরনার ১০০০ দিনে মাথা নেড়া করে প্রতিবাদ SLST মহিলা চাকরিপ্রার্থী রাসমণি পাত্র। শনিবার ধরনামঞ্চে বসেই মস্তক মুণ্ডন করেন তিনি। 

Advertisement

প্রতিবাদী মহিলা চাকরিপ্রার্থী রাসমণি জানান, “যন্ত্রণার হাজার দিনে আর কোনও পথ খুঁজে না পেয়ে মাথা নেড়া করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমরা আশ্বাস ছাড়া আর কিছুই পাইনি। সংসার ছেড়ে ধরনামঞ্চে বসে আছি। পাচ্ছি না কিছুই।” অবিলম্বে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ধরনামঞ্চে আসার দাবিও জানান SLST আন্দোলনকারীরা।

[আরও পড়ুন: বঙ্গে দুর্দান্ত ব্যাটিং শীতের, সোয়েটার-কম্বল তৈরি তো?]

প্রসঙ্গত, ২০১৬ সালে নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি হয়েছিল। পরীক্ষায় পাশ করেও চাকরি পাননি অনেকেই। যার নেপথ্যে বিপুল দুর্নীতি বলেই দাবি আন্দোলনকারীদের। নিয়োগের দাবিতে ঘরবাড়ি ছেড়ে এক হাজার দিন ধরে রাস্তায় রয়েছেন চাকরিপ্রার্থীরা। কখনও মুখে কালি মেখে, আবার কখনও খালি গায়ে প্রতিবাদে বসেছেন আন্দোলনকারীরা। এমনকী, মুখ্যমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করতে রক্ত দিয়ে চিঠিও লেখেন। এবার মাথা মুড়িয়ে প্রতিবাদ মহিলা চাকরিপ্রার্থীর।

যদিও রাজ্য সরকারের দাবি, আপাতত এই ইস্যুটি আদালতে বিচারাধীন।  একের পর এক আইনি গেরোয় এখনই কাউকে চাকরি দেওয়া সম্ভব নয়। সৌগত রায় যদিও মহিলা চাকরিপ্রার্থীর আন্দোলনকে ‘নাটক’ বলেই কটাক্ষ করেছেন। তবে বিরোধীরা সে দাবি মানতে নারাজ। কাউকে চাকরি দেওয়ার ক্ষেত্রে আইনি কোনও বাধা নেই বলেই দাবি সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তীর। এদিকে,  শনিবার বিকেলে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে দেখা করতে যান তৃণমূলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষ। বলেন, “কারও কথায় নয়, নেড়া হতে থেকে ধরনাস্থলে এসেছি।”
দেখুন ভিডিও:

[আরও পড়ুন: ভিলেন ঘূর্ণিঝড় ‘মিগজাউম’! আলু চাষে ক্ষতিপূরণের দাবিতে রাজ্যকে চিঠি শুভেন্দুর]

Advertisement
Next