Advertisement

অন্য মহিলার সঙ্গে ফোনে কথা, রাগে বয়ফ্রেন্ডের গলার নলি কেটে খুন করল যুবতী

04:59 PM Apr 29, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অন্য মহিলার সঙ্গে ফোনে কথা বলার জন্য বয়ফ্রেন্ডের গলার নলি কেটে খুন করল গার্লফ্রেন্ড! শুনতে অবাক লাগলেও এমনটাই ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের (Uttar Pradesh) সীতাপুরের লহরপুর থানার অন্তর্গত এলাকায়। অন্য এক মহিলার সঙ্গে ফোনে কথা বলায় বয়ফ্রেন্ড রাজেশের (২৮) গলার নলি কেটে খুন করল রজনী (৩৫) নামে এক মহিলা। ইতিমধ্যে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে অভিযুক্ত রজনীকে।

Advertisement

একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, গত তিন বছর ধরেই সম্পর্ক ছিল রাজেশ এবং রজনীর। একটি দোকানে কাজ করলেও মাঝেমধ্যেই রজনীকে দামী উপহার কিনে দিত রাজেশ। কিন্তু ঘটনার দিন অন্য এক মহিলার সঙ্গে ফোনে কথা বলছিলেন রাজেশ। আর এই নিয়েই দু’জনের মধ্যে ঝামেলা শুরু হয়। আর সেই সময় কথা কাটাকাটির মাঝেই ধারাল অস্ত্র দিয়ে রাজেশের গলার নলি কেটে দেয় রজনী। এরপর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

[আরও পড়ুন:৩ থেকে ২০ মে দেশে কোনও লকডাউন নয়, গুজব উড়িয়ে জানাল কেন্দ্র]

এই প্রসঙ্গে লহরপুরের স্টেশন হাউস অফিসার আর এস দ্বিবেদি বলেন, “ঘটনার দিন রাজেশ অন্য এক মহিলার সঙ্গে ফোনে কথা বলছিলেন। এই সময় রজনী তাঁকে দু’বার জিজ্ঞেস করে, তিনি কার সঙ্গে কথা বলছেন? কিন্তু রাজেশ সেই সম্পর্কে কিছু জানাতে অস্বীকার করেন। এরপরই রাগের মাথায় ধারাল ছুরি দিয়ে রাজেশের গলার নলি কেটে দেয় রজনী। আহত রাজেশ মুহূর্তে মেঝেয় লুটিয়ে পড়েন। শেষ পর্যন্ত গ্রামবাসীরাই আহত রাজেশকে উদ্ধার করে নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। এরপরই রাজেশের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে রজনীর নামে থানায় মামলা দায়ের করা হয়। উদ্ধার করা হয়েছে রক্তমাখা ছুরিটিও। শুধু তাই নয়, ঘটনাস্থল থেকে ফিঙ্গারপ্রিন্টও সংগ্রহ করেছে ফরেনসিক টিম।”

[আরও পড়ুন: করোনায় বেসামাল দেশ, সেনাপ্রধান নারাভানের সঙ্গে জরুরি বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী মোদি]

Advertisement
Next