Advertisement

স্বল্প সময়ের জন্য উদ্বৃত্ত অর্থ রাখবেন কোথায়? জেনে নিন সহজে লগ্নির ফান্ডা

07:46 PM Sep 13, 2021 |
Advertisement
Advertisement

সচরাচর থাকে না, কিন্তু এখন অন্তত কিছু সময়ের জন্য হলেও রয়েছে। হ্যাঁ, হাতে থাকা আপনার সেই বাড়তি টাকার কথাই বলছি, যা নির্দিষ্ট সময়ের পরে হয়তো ফেরত দিয়ে দিতে হবে। তা, তার আগে একে কাজে লাগিয়ে ফেলুন না! ‘শর্ট টার্ম সারপ্লাস’-এর জন্য আছেই তো, নানা ধরনের শর্ট টার্ম ডেট ফান্ড। বেছে নিন নিজের পছন্দেরটা। তথ্য দিল টিম সঞ্চয়

Advertisement

নে করুন আজ আপনার হাতে হঠাৎই সাময়িক কিছু উদ্বৃত্ত অর্থ রয়েছে, হয়তো কেবল চার-পাঁচ মাসের জন‌্য। এই স্বল্প মেয়াদের পরই হয়তো সেই অর্থ ফেরৎ দিতে হবে, অথবা কারও হাতে তুলে দিতে হবে। অর্থাৎ সময় বড় অল্প, কিন্তু তাও আপনি ব্যাংকে স্বল্প-মেয়াদি আমানত করে রাখতে নারাজ। আপনি চান, আরও একটু ঝুঁকি নিয়েও ভাল রিটার্ন আনতে। ‘শর্ট টার্ম সারপ্লাস’ যাকে বলে, তার সুরাহার জন‌্য আছে শর্ট টার্ম ডেট ফান্ডের নানা ধরনের বিকল্প।

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1630720090-3');});

[আরও পড়ুন: হঠাৎ টাকার দরকার? জেনে নিন বন্ধক রেখে কীভবে সহজেই মিলবে ঋণ]

‘সঞ্চয়’-এর পাঠক আগেই জেনেছেন যে অনেক জাতের ডেট ফান্ড হয়। এগুলির মধ্যে আজ আমরা কয়েকটি বেছে নিচ্ছি :–
(১) লিকুইড ফান্ড
(২) মানি মার্কেট ফান্ড
(৩) লো ডিউরেশন ফান্ড
(৪) আল্ট্র শর্ট টার্ম ফান্ড

এই চারটি ফান্ডের আলাদা আলাদা বৈশিষ্ট‌্য আছে বটে, কিন্তু যে কথাগুলি এইসব কটির ক্ষেত্রে সাধারণভাবে প্রযোজ‌্য সেগুলি হল :–
১. খুব স্বল্প মেয়াদের জন‌্য আদর্শ।
২. সবই ওপেন-এন্ড, কোনও এক্সিট লোড নেই (ব‌্যতিক্রম: লিকু‌ইড ফান্ড-এখানে সাত দিনের লোড আছে)। মানে, সাত দিনের আগে বেচে দিলে সামান‌্য লোড দিতে হবে।
৩. রিডেম্পশন চাইলে অতি দ্রুত টাকা আবার ব্যাংকে ক্রেডিট হবে।
৪. ইন্টারেস্ট রেটের ওঠাপড়া জনিত রিস্ক খুবই কম। তবে হ্যাঁ, ক্রেডিট রিস্ক যেন কম থাকে, সেদিকে নজর রাখুন।

এখানে মনে রাখতে হবে স্বল্পমেয়াদি ফান্ডগুলি বহু ক্ষেত্রেই এমার্জেন্সির জন‌্য ব‌্যবহার করা হয়ে থাকে। ধরা যাক আপনি জানেন কোনও অসুখ বিসুখের চিকিৎসা শুরু করতে হবে এবং সেজন‌্য সামনের তিন মাস, লাখ দুই টাকা অন্তত লাগবে। ব্যাংকে আলাদাভাবে রাখতে পারেন এই টাকা, আবার ব্যাংকের ৩-৩.৫% উপেক্ষা করে মানি মার্কেট ফান্ডেও রাখতে পারেন বেশি লাভের আশায়। এও খেয়াল রাখুন যে লাভের অঙ্কটি কিন্তু প্রতিশ্রুত নয়। তার মানে কিছুই গ‌্যারান্টিড নয়। সামান‌্য রিস্ক তো আছেই, তবে রিটার্নও কিঞ্চিৎ আসার সম্ভাবনা থেকেই যায়।

রিটার্নের কথাই যদি উঠল, নিচের সারণিতে চোখ রাখলে বুঝতে পারবেন কিরকম লাভ করতে পারবেন –
আগেই বলেছি এই ধরনের বিকল্পগুলি খুব স্বল্প সময়ের জন‌্য, গড়পড়তা কয়েকমাসের বেশি (আল্ট্রা শর্ট হলে আরও একটু টানতে পারেন) এগুলিতে টাকা লগ্নি করে রাখার কথা চিন্তাও করবেন না। ডেট ফান্ড কিনবেন নিজের ‘টাইম হরাইজন’ (time horizon) বিচার করে। এছাড়াও বলি, ইকুইটি বা অন‌্য অ‌্যাসেট ক্লাসের সঙ্গে ডেটের তুলনা করবেন না। রিস্কের ধরন দিয়ে বিচার করলে ইকুইটি সম্পূর্ণ স্বতন্ত্র।

[আরও পড়ুন: হাতের কাছে একাধিক বিকল্প, তবে লগ্নির আগে অবশ্যই মাথায় রাখুন এই তথ্যগুলি]

Advertisement
Next