Advertisement

শক্তি বাড়িয়ে নিল এটিকে-মোহনবাগান, ৫ বছরের চুক্তিতে যোগ অমরিন্দরের

02:05 PM Jun 01, 2021 |

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পরের মরসুমের শক্তি আরও বাড়িয়ে নিল এটিকে-মোহনবাগান (ATK-Mohun Bagan)। স্পেনীয় কোচ আন্তোনিও লোপেজ হাবাসের (Antonio Lopez Habas) দলে এলেন অমরিন্দর সিং। আগামী পাঁচ বছরের জন্য সবুজ-মেরুনের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হলেন দেশের অন্যতম সেরা গোলকিপার।

Advertisement

গত মরসুমে আইএসএল (ISL) চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল মুম্বই সিটি এফসি। সেই দলের হয়ে খেলেছিলেন পঞ্জাবের মাহিলপুরের এই গোলকিপার। হাবাসের ভাবনা তাঁকে আকর্ষণ করে। সেই কারণে তিনি বেছে নিলেন এটিকে-মোহনবাগান। 

[আরও পড়ুন: সোশ্যাল মিডিয়ায় টিম ইন্ডিয়ার ড্রেসিংরুমের গোপন কথা ফাঁস করলেন কোহলি]

বর্তমানে জাতীয় দলের সঙ্গে রয়েছেন দোহায়। এর আগেও তিনি কলকাতায় খেলে গিয়েছেন। যদিও অল্প সময়ের জন্য। কিন্তু এই শহরের ফুটবলের প্রতি ভালবাসার কথা তাঁর জানা। অমরিন্দর (Amrinder Singh) জানেন এখানকার ফুটবলপাগলদের ফুটবলের প্রতি প্যাশনের কথা। সেই ভালবাসার টানেই ফিরে এসেছেন এই শহরে। অতীতে কলকাতায় খেলে যাওয়া প্রসঙ্গে জাতীয় দলের গোলকিপার বলছেন, “আগে কলকাতায় খেললেও সেটা খুব কম সময়ের জন্য। এবারের যোগদান আমার ফুটবল জীবনের নতুন অধ্যায় হতে চলেছে।” 

২০১৫-১৬ মরসুমে হাবাসের কোচিংয়ে খেলেছিলেন তিনি। সেই মরসুমে ১৩টি ম্যাচ খেলেছিলেন। আবার হাবাসের কোচিংয়েই খেলার জন্য দীর্ঘ পাঁচ বছর মুম্বই সিটিতে খেলার পরে কলকাতায় এবার আসছেন অমরিন্দর। বেঙ্গালুরু এফসি থেকে লোনে যোগ দিয়েছিলেন মুম্বইতে। মুম্বইয়ের জার্সিতে এফসি গোয়ার বিরুদ্ধে অভিষেক ম্যাচ খেলেছিলেন  অমরিন্দর। ২০১৬ সালে ‘গোল্ডেন গ্লাভস’ জিতেছিলেন এই গোলকিপার। মুম্বইয়ের বারের নীচে দাঁড়িয়েছেন ৮৪টি ম্যাচে। 

গত বছর মুম্বই সব ট্রফি জিতেছে। বারের নীচে অমরিন্দরের গ্লাভস জোড়া স্বস্তি দিয়েছিল সতীর্থদের। নতুন জার্সিতে একই ভাবে সাফল্য পেতে চান তিনি। হাসি ফোটাতে চান সমর্থকদের মুখে।  

[আরও পড়ুন: ‘ভুল সিদ্ধান্তের জন্য ক্ষমাপ্রার্থী’, তৃণমূলে ফিরতে চেয়ে মমতাকে চিঠি দীপেন্দু বিশ্বাসের]

আইএসএলের বিশ্বে হাবাস অন্যতম সফল কোচ। তাঁর কোচিংয়ে শুরু থেকেই ফুল ফুটিয়েছে কলকাতার ফ্র্যাঞ্চাইজি। অমরিন্দর বলছেন, “হাবাসের ফুটবল ভাবনা আমাকে টানে। সব থেকে বড় কথা ভারতীয় ফুটবলারদের থেকে সেরা খেলাটা বের করে আনতে দক্ষ হাবাস।” সেই দলের সদস্য হওয়ার অনুভূতিটাই দারুণ। বলছেন বহু যুদ্ধের নায়ক অমরিন্দর। 

Advertisement
Next