শতবর্ষের অনুষ্ঠানে গৌতম সরকার ও স্বপন সেনগুপ্তকে জীবনকৃতি সম্মান দেবে ইস্টবেঙ্গল

09:09 AM Jul 13, 2022 |
Advertisement

স্টাফ রিপোর্টার: করোনা আবহে সাময়িকভাবে স্থগিত ছিল ইস্টবেঙ্গলের শতবার্ষিকী অনুষ্ঠান। ইমামির সঙ্গে চুক্তি সম্পন্ন হওয়ার পরেই শতবার্ষিকী অনুষ্ঠান নিয়ে নতুন করে ভাবনা চিন্তা শুরু করবেন লাল-হলুদ কর্তারা। তবে মঙ্গলবার ক্লাবের কার্যকরী কমিটির সভায় ঠিক হল, এই মরশুমে ইস্টবেঙ্গলের জীবনকৃতি সম্মান পাবেন দুই প্রাক্তন ফুটবলার গৌতম সরকার এবং স্বপন সেনগুপ্ত। ধাপে ধাপে ভারত গৌরব সম্মান-সহ অনুষ্ঠানের অন্যান্য পুরস্কার প্রাপকদের নাম ঘোষণা করা হবে। ১ আগস্ট প্রতিষ্ঠা দিবসে সদস্যদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা-সহ নানাবিধ সমাজিক কাজে অংশগ্রহণ করবে ইস্টবেঙ্গল ক্লাব।

Advertisement

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782001027-0'); });

তবে কার্যকরী কমিটির সভায় আলোচনায় মূল বিষয়বস্তু ছিল ইমামির (Emami) সঙ্গে চুক্তির বিষয়। কার্যকরী কমিটির সভায় সদস্যদের পুরো পরিস্থিতি বিশ্লেষণ করে জানানো হয়, চুক্তির প্রক্রিয়াটি এখন ঠিক কোন পর্যায়ে রয়েছে। পরে ক্লাবের অন্যতম শীর্ষকর্তা দেবব্রত সরকার বলছিলেন, “বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে আলোচনার পর্ব শেষ হয়ে গিয়েছে। সামান্য যে দু’-একটা পয়েন্ট নিয়ে মত পার্থক্য ছিল, সেগুলিও সমাধান হয়ে গিয়েছে। এবার পুরো ব্যাপারটার আইনি রূপ পেতে কিছুটা সময় তো লাগবেই। আর সেই সময়টা ইমামিকে দিতে হবে।” ইস্টবেঙ্গল (East Bengal) প্রাইভেট লিমিটেডের জায়গায় ইমামির সঙ্গে নতুন কোম্পানী গঠনের জন্য পুরনো কোম্পানী থেকে ছাড়পত্র দেওয়ার ব্যাপারটা এদিন ক্লাবের কার্যকরী কমিটির সভায় পাশ করিয়ে নেওয়া হল। ঠিক হয়েছে, ইমামির সঙ্গে কথা বলে কিছুদিনের মধ্যেই ফের আলোচনায় বসা হবে।

window.unibots = window.unibots || { cmd: [] }; unibots.cmd.push(()=>{ unibotsPlayer('sangbadpratidin'); });

[আরও পড়ুন: TET নিয়োগ দুর্নীতি: জনস্বার্থ মামলা গ্রহণ হাই কোর্টের, প্রায় ৪৩ হাজার শিক্ষকের নথি চাইল CBI]

সব কিছু ঠিক হয়ে যাওয়ার পরেও ফের আলোচনায় বসার কারণ জিজ্ঞাসা করা হলে দেবব্রত সরকার বলেন, “চুক্তি নিয়ে কোনও সমস্যা নেই। কাগজপত্র তৈরি হতে যা সময় লাগছে, সেটাই দিতে হবে। আমরা আলোচনায় বসতে চাইছি, চুক্তি সম্পন্ন হওয়ার পরের পর্যায়গুলি নিয়ে আলোচনার জন্য। কারণ, হাতে বিশেষ সময় নেই। তাই পরের পদক্ষেপ ঠিক করার জন্যই আলোচনায় বসতে চাইছি।”

Advertising
Advertising

googletag.cmd.push(function() { googletag.display('div-gpt-ad-1652782050143-0'); });

প্রথমে চুক্তি হবে। তারপর কোচ-সহ দল গঠন হবে। তাহলে কলকাতা লিগ (CFL) আর ডুরান্ডে দল খেলবে কীভাবে? ইস্টবেঙ্গল কর্তা বললেন, “আমরা তো সব কিছুই খেলতে চাইছি। আইএফএ যদি ইস্টবেঙ্গলকে কলকাতা লিগে খেলাতে চায়, তাহলে আইএফএ-কে ইস্টবেঙ্গলের জন্য অপেক্ষা করতে হবে। সব কিছু ঠিকঠাক হয়ে যাওয়ার পর নিশ্চয়ই আমরা লিগে খেলব। ততদিন আমাদের জন্য আইএফএ-কে অপেক্ষা করতে হবে। যদি আইএফএ সেই অপেক্ষাটা না করে, তাহলে আমাদের কিছু করার নেই। তবে এখনও আমরা বলছি, ইস্টবেঙ্গল ক্লাব সব প্রতিযোগিতায় খেলতে চায়।”

[আরও পড়ুন: লাইভ সম্প্রচারের মাঝেই কিশোরকে সপাটে চড়, নেটদুনিয়ায় ভাইরাল পাক সাংবাদিকের কাণ্ড]

Advertisement
Next