‘বেশিদিন অগ্রাহ্য করা যাবে না’, UNSCতে ভারতের স্থায়ী সদস্যপদ নিয়ে সরব জয়শংকর

06:19 PM Sep 29, 2022 |
Advertisement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাষ্ট্রসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের (UNSC) স্থায়ী সদস্যপদ দেওয়া হোক ভারতকে, এই দাবি দীর্ঘদিনের। আপাতত নিরাপত্তা পরিষদে আরও পনেরোটি দেশের সঙ্গে অস্থায়ী সদস্য হিসাবে রয়েছে ভারত। আগামী ডিসেম্বর মাসে নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে সভাপতিত্বও করবে ভারত। এহেন পরিস্থিতিতে নিরাপত্তা পরিষদের গঠনতন্ত্র নিয়ে সরব হলেন ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর (S Jaishankar)। তিনি বলেছেন, রাতারাতি একটি সংস্থার গঠন পালটে ফেলা সম্ভব নয়। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে ভারত নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য হতে চাইছে, সেই দাবিও অগ্রাহ্য করা উচিত নয়।

Advertisement

আমেরিকা সফরে গিয়ে মার্কিন বিদেশ সচিব অ্যান্থনি ব্লিঙ্কেনের সঙ্গে বৈঠক করেছেন জয়শংকর। তার পরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে ভারতের বিদেশমন্ত্রী বলেছেন, “আমার মনে হয় রাষ্ট্রসংঘের সকল সদস্যকে একসঙ্গে মিলে কাজ করতে হবে। আমরাও লাগাতার ভাবে দাবি জানিয়ে আসছি, ভারতকে যেন নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্যপদ দেওয়া হয়।” গত সপ্তাহেই রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেখানেও ভারতকে নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য পদ দেওয়া নিয়ে ফের আলোচনা হয়েছে।

[আরও পড়ুন: দু’মাস আগে মৃত সেনেটরকে খুঁজলেন বাইডেন! বেফাঁস মন্তব্যে অস্বস্তিতে হোয়াইট হাউস]

জানা গিয়েছে, আমেরিকা ও রাশিয়া-দুই দেশই ভারতকে নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য হিসাবে চায়। সাধারণ সভায় মার্কিন প্রশাসনের এক শীর্ষ আধিকারিক বলেছিলেন, ভারত, জার্মানি ও জাপানকে নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য পদ দিতে আগ্রহী আমেরিকা। ব্লিঙ্কেনের তরফ থেকেও এই বক্তব্যে সিলমোহর দেওয়া হয়। অন্যদিকে রুশ বিদেশমন্ত্রী সের্গেই লাভরভ বলেছেন, নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য হওয়ার সবরকম যোগ্যতা রয়েছে ভারত ও ব্রাজিলের। প্রসঙ্গত, নিরাপত্তা পরিষদের অস্থায়ী সদস্যদের ভারতই একমাত্র দেশ, যাকে রাশিয়া ও আমেরিকা দুই রাষ্ট্রই সমর্থন করেছে।

Advertising
Advertising

তবে জয়শংকর আরও বলেছেন, রাষ্ট্রসংঘের একটি গোষ্ঠীর ইচ্ছা, ভারত যেন নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যপদ না পায়। তিনি বলেছেন, “আপনারা এটাও জানেন যে কারা ভারতকে নিরাপত্তা পরিষদে চায় না। তবে তার জন্য থেমে থাকবে না ভারত। আমরা জানি যে সহজেই রাষ্ট্রসংঘের গঠনতন্ত্র বদলে ফেলা সম্ভব নয়। তা সত্বেও আমাদের বিশ্বাস, ভারতের দাবিকে চিরদিন অগ্রাহ্য করা যাবে না।”

[আরও পড়ুন:অধিকৃত ইউক্রেনে গণভোট রাশিয়ার, কী মত ভারতের? মুখ খুললেন জয়শংকর]

Advertisement
Next